প্রাথমিকে পদোন্নতি পেলেন ৫৭৮ শিক্ষক, অপেক্ষায় ৮৩২


টাইমস প্রতিবেদক
Published: 2018-08-16 10:31:07 BdST | Updated: 2018-11-13 11:25:28 BdST

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক পদে গাইবান্ধা ও নাটোর জেলায় ৫৭৮ সহকারী শিক্ষককে পদোন্নতি দেয়া হয়েছে। এছাড়াও আরও দুই জেলায় পদোন্নতির অপেক্ষায় রয়েছেন ৮৩২ শিক্ষক। মঙ্গলবার প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সূত্র জানায়, গাইবান্ধা ও নাটোর জেলায় অবস্থিত সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৫৭৮ শিক্ষককে চলতি দায়িত্বে প্রধান শিক্ষক পদে পদোন্নতি দেয়া হয়েছে। তারমধ্যে গাইবান্ধার ৭টি উপজেলার ৪২২ জন এবং নাটোরের ৭টি উপজেলার ১৫৬ শিক্ষক রয়েছেন।

সোমবার প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে এ সংক্রান্ত নির্দেশনা জারি করা হয়েছে। পদোন্নতিপ্রাপ্ত শিক্ষকদের আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে নতুন কর্মস্থলে যোগদানের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, আরও দুই জেলার ৮৩২ জ্যেষ্ঠ সহকারী শিক্ষকরা পদোন্নতির অপেক্ষায় রয়েছেন। তারমধ্যে পাবনা জেলার ৯টি উপজেলায় ৩১১ জন এবং বরিশাল জেলার ১০টি উপজেলার ৫২১ শিক্ষক রয়েছেন। চলতি সপ্তাহে এসব শিক্ষকদের পদোন্নতির নির্দেশনা জারি করা হবে বলেও জানা গেছে।

এ বিষয়ে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব ড. এ এফ এম মনজুর কাদির বলেন, জ্যেষ্ঠতার ভিত্তিতে সব জেলার তালিকাভুক্ত শিক্ষকদের চলতি দায়িত্বে প্রধান শিক্ষক পদে পদোন্নতি দেয়া হচ্ছে। ইতোমধ্যে ৪৫টি জেলার শিক্ষকদের পদোন্নতি দেয়া হয়েছে।

পর্যায়ক্রমে বাকি জেলা থেকে শিক্ষকদের গ্রেডেশন তালিকা পেলে সেখানেও প্রধান শিক্ষকের শূন্য পদে সহকারী শিক্ষকদের চলতি দায়িত্বে বসানো হবে।

উল্লেখ্য, গত ২৩ মে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষকের শূন্য স্থানে জ্যেষ্ঠ সহকারী শিক্ষকদের দায়িত্ব দেয়ার ঘোষণা দেন। এরপর থেকেই সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে চলতি দায়িত্বে প্রধান শিক্ষক পদে পদোন্নতি কার্যক্রম শুরু হয়।

এসএম/ ১৬ অাগস্ট ২০১৮

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।