ভর্তি পরীক্ষা দেওয়া হচ্ছে না দুই নিরাপদ সড়ক আন্দোলনকারীর


Dhaka University Times
Published: 2018-09-20 17:38:36 BdST | Updated: 2018-12-10 23:14:20 BdST

আদালতের আদেশের পরও দুই শিক্ষার্থী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের খ ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষা দিতে পারছেন না। আগামীকাল ২১ সেপ্টেম্বর এই দুই শিক্ষার্থীর পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। ওই দুই শিক্ষার্থীর নাম নাইমুল হাসান ইরফান ও রফিকউল্লাহ।

বাকলিয়া থানায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে দায়ের হওয়া মামলায় ওই দুজনকে গত ১৮ সেপ্টেম্বর গ্রেপ্তার করা হয়। দুজনই এখন চট্টগ্রাম কারাগারে আছেন।

নাইমুল ও রফিকের আইনজীবী শামসুল আলম বলেন, ওই দুই শিক্ষার্থী নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে যুক্ত ছিলেন। তিনি বলেন, চট্টগ্রামের মুখ্য মহানগর হাকিমের আদালতে জামিন ও পরীক্ষায় অংশগ্রহণের সুযোগ দেওয়ার আবেদন করেছিলেন ১৯ সেপ্টেম্বর। আদালত বিধি মোতাবেক ওই দুই ছাত্রের পরীক্ষা নেওয়ার আদেশ দেন।

চট্টগ্রাম জেল থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্য, ডিন, প্রক্টর, পরীক্ষা আহ্বায়ক, জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ও মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট বরাবর চিঠি পাঠানো হয়। ওই চিঠিতে আদালতের আদেশের বিষয়টি উল্লেখ করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার অনুরোধ জানানো হয়।

কারা অধিদপ্তরের উপমহাপরিদর্শক (ঢাকা বিভাগ) তৌহিদুল ইসলাম আজ সন্ধ্যায় বলেন, আদালতের আদেশ থাকলে বন্দী কোনো শিক্ষার্থী পরীক্ষা দিতে পারবেন কি না তা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিদ্ধান্তের ওপর নির্ভর করবে। এ ক্ষেত্রে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের চট্টগ্রাম থেকে ঢাকার কেরানীগঞ্জে পাঠাবেন এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিনিধি কারাগারে গিয়ে পরীক্ষা নেবেন।

চট্টগ্রাম কারাগারের ডেপুটি জেলার মনির হোসাইন জানিয়েছেন, বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তাঁদের সঙ্গে যোগাযোগ করেননি। পরীক্ষায় অংশগ্রহণের ব্যাপারে যে আইন সেটিও খুব স্পষ্ট নয়।

জানতে চাইলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য মো. আখতারুজ্জামান বলেন, ভর্তি পরীক্ষা দিতে যারা কেন্দ্রে আসবে কেবল তাদেরই পরীক্ষা নেওয়া হবে। আদালতের আদেশ প্রসঙ্গে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, কারা কর্তৃপক্ষ যদি বিশেষ ব্যবস্থাপনায় তাদের নিয়ে আসে, তাহলে বিশ্ববিদ্যালয় পরীক্ষা নেবে।---প্রথম আলো

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।