প্রাথমিকে প্রশ্ন ফাঁসের প্রমাণ পেলে পরীক্ষা বাতিল


ঢাকা
Published: 2019-06-16 23:48:43 BdST | Updated: 2019-10-18 05:43:57 BdST

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন বলেছেন, কেউ যদি প্রশ্নফাঁসের প্রমাণ দিতে পারে তাহলে প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা বাতিল করা হবে। রোববার নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

আসলেই প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় প্রশ্নফাঁস হয়েছে কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছেও বলে জানান তিনি। তদন্তে যদি প্রশ্নফাঁসের প্রমাণ পাওয়া যায় তবে পরীক্ষা বাতিল করা হবে। তিনি বলেন, প্রশ্নফাঁসের অভিযোগগুলো জেলা শিক্ষা কর্মকর্তাদের খতিয়ে দেখতে বলা হয়েছে। তারা অভিযোগগুলো তদন্ত করে দেখছেন।

উল্লেখ্য, ২৪ ও ৩১ মে প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগের ১ম ও ২য় ধাপের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। পরীক্ষায় বিভিন্ন জেলায় প্রশ্নফাঁসের অভিযোগ ওঠে। প্রশ্নফাসের অভিযোগ তুলে পরীক্ষা বাতিলের দাবি জানানো হয়।প্রশ্নফাঁসের অভিযোগে সাতক্ষীরায় ২১ জন এবং পটুয়াখালীতে ১৩ জনকে আটক করে আদালতের মাধ্যমে তাদেরকে একবছরের কারাদণ্ড দেয়া হয়।

আগামী ২১ জুন শিক্ষক নিয়োগের ৩য় ধাপের এবং আগামী ২৮ জুন অনুষ্ঠিত হবে।