খুন-ধর্ষণ- দুর্নীতির বিরুদ্ধে ঢাবিতে সাধারণ ছাত্র পরিষদের মিছিল


ঢাবি টাইমস
Published: 2019-07-10 20:00:22 BdST | Updated: 2019-07-21 05:54:56 BdST

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে খুন, ধর্ষণ ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে প্রতিবাদি মিছিল ও সমাবেশ করেছে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ।

বুধবার (১০ জুলাই) বেলা ১১টায় ঢাবির রাজু ভাস্কর্য থেকে কয়েকশ’ শিক্ষার্থী এই মিছিল বের করে। মিছিল শেষে অপরাজেয় বাংলার পাদদেশে এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে বক্তব্য দেন ডাকসুর ভিপি নুরুল হক নুর, সমাজ সেবাবিষয়ক সম্পাদক আখতার হোসেন, সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের ‍যুগ্ম আহ্বায়ক রাশেদ খান ও ফারুক হোসেন প্রমুখ।

ডাকসুর ভিপি নুরুল হক নুর বলেন, ‘সমাজের রন্ধ্রে রন্ধ্রে যে খুন, ধর্ষণ ও দুর্নীতি হচ্ছে তার বিরুদ্ধে বাংলার ছাত্রসমাজকে জাগতে হবে। এদেশের প্রতিটি স্তরে অন্যায়-অবিচার প্রতিষ্ঠিত হয়ে যাচ্ছে। এই মুহূর্তে যদি আমরা না জাগি তাহলে আমাদের ভবিষ্যৎ অন্ধকার। পরবর্তী প্রজন্মের কাছে আমাদেরকে ধিক্কার শুনতে হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘বিচারহীনতার সংস্কৃতিকে প্রতিষ্ঠা করার জন্য বিচার না করেই ক্রস ফায়ারের নাটক করা হচ্ছে। গডফাদারদের আড়াল করতে আইনের দুর্বলতার কারণেই অপরাধীরা বারবার পার পেয়ে যাচ্ছে। ’

তিনি আইন সংশোধন করে কঠোর আইন করার মাধ্যমে দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল গঠন করে খুন, ধর্ষণ ও দুর্নীতির মতো ঘটনার সুষ্ঠু বিচারের দাবি জানান।

.

ডাকসুর সমাজ সেবাবিষয়ক সম্পাদক আখতার হোসেন বলেন, ‘বাংলাদেশের সমাজ ব্যবস্থা ধ্বংস হয়ে যাচ্ছে। বৃদ্ধা থেকে শুরু শিশুদের ধর্ষণ করা হচ্ছে। এগুলোর বিচার হচ্ছে না। তাই ছাত্রসমাজ রাস্তায় নেমে এসেছে।’

সমাবেশে ধর্ষকদের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড ঘোষণার দাবি জানিয়ে রাশেদ খান বলেন, একের পর এক ধর্ষণের ঘটনা বেড়েই চলেছে। কোনো বিচার হচ্ছে না। আমরা মনে করি এটা সরকারের একটি ব্যর্থতা। ধর্ষকরা জামিন পায় কিভাবে?এর কারণে ধর্ষকরা আসকারা পেয়ে যাচ্ছে।’

ধর্ষণের বিচার না হলে ছাত্রসমাজকে নিয়ে রাজপথে কঠোর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দেওয়া হয় সমাবেশ থেকে।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।