রাঁঙ্গাকে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান ডাকসুর


Dhaka
Published: 2019-11-11 22:45:06 BdST | Updated: 2019-12-15 19:43:48 BdST

গণতন্ত্রের জন্য শহীদ নূর হোসেনকে ‘মাদকাসক্ত’ বলায় জাতীয় পার্টির মহাসচিব মসিউর রহমান রাঁঙ্গাকে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানিয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ-ডাকসু।

দলের এক অনুষ্ঠানে রাঙ্গাঁর দেওয়া বক্তব্যের নিন্দা জানিয়ে সোমবার সোমবার ডাকসুর স্বাধীনতা সংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক সাদ বিন কাদের চৌধুরী স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে এই আহ্বান জানানো হয়।

রোববার রাঙ্গাঁ বলেছিলেন, “হুসেইন মুহম্মদ এরশাদকে ক্ষমতাচ্যুত করতে ষড়যন্ত্রমূলকভাবে মাদকাসক্ত নূর হোসেনকে পেছন থেকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে।”

অবৈধভাবে ক্ষমতা দখলকারী সামরিক শাসক এইচ এম এরশাদকে হটাতে আওয়ামী লীগ, বিএনপি ও বামসহ দেশের প্রায় সব রাজনৈতিক দল সম্মিলিতভাবে ১৯৮৭ সালে ঢাকা অবরোধের কর্মসূচি দিয়েছিল; সেদিন পুলিশের গুলিতে নিহত হন পরিবহন শ্রমিক নূর হোসেন।

বুকে-পিঠে ‘স্বৈরাচার নিপাত যাক-গণতন্ত্র মুক্তি পাক’ লিখে সেদিন মিছিলে নেমেছিলেন আওয়ামী লীগকর্মী নূর হোসেন; সেদিন তার আত্মদান এরশাদবিরোধী আন্দোলনে দিয়েছিল নতুন মাত্রা।

১৯৮৭ সালে আন্দোলন নতুন মাত্রা পাওয়ার পর তিন বছরের মাথায় গণঅভ্যুত্থানে ১৯৯০ সালের ৪ ডিসেম্বর ক্ষমতা ছাড়তে রাজি হন এরশাদ; যার গড়া দল জাতীয় পার্টিতে এখন মহাসচিবের দায়িত্বে রয়েছেন রাঙ্গাঁ।

রাঙ্গাঁর বক্তব্য নিয়ে ক্ষোভ-বিক্ষোভের মধ্যে ডাকসুর বিবৃতিতে বলা হয়, “জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জি এম কাদেরের উপস্থিতিতে জাতীয় পার্টির মহাসচিব রাঙ্গাঁ শহীদ নূর হোসেনকে ইয়াবাখোর, ফেনসিডিলখোর বলে যে বিতর্কিত মন্তব্য করেছেন এবং স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলনের একজন শহীদকে যেভাবে অপমান ও অশ্রদ্ধা করেছেন, ডাকসু তার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানায়।

“একই সাথে মসিউর রহমান রাঙ্গাঁকে তার এই বক্তব্য প্রত্যাহার ও জাতির কাছে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাওয়ার আহবান জানায়। তার এই বক্তব্যের প্রতিবাদ করা গণতন্ত্রকামী প্রতিটি মানুষের দায়িত্ব বলে আমরা মনে করি।”