টেলিভিশনে প্রাথমিকের পাঠদান শুরু মঙ্গলবার


টাইমস প্রতিবেদক
Published: 2020-04-05 14:23:58 BdST | Updated: 2020-06-07 15:03:24 BdST

সব ধরনের প্রস্তুতি থাকার পরও স্টুডিও ও টেকনিশিয়ান না পাওয়ায় সময়মতো ক্লাস রেকর্ডিং করতে পারেনি প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর (ডিপিই)। ফলে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের জন্য সংসদ টেলিভিশনে শ্রেণিপাঠ কার্যক্রম ৫ এপ্রিল শুরুর চিন্তা-ভাবনা থাকলেও তা হচ্ছে না।

আগামী মঙ্গলবার (৭ এপ্রিল) থেকে এ পাঠদান শুরু হবে বলে জানা গেছে।

সংশ্লিষ্টরা জানান, শুরুতে তৃতীয় থেকে পঞ্চম শ্রেণির চারটি বিষয়ের ক্লাস সম্প্রচার করা হবে। প্রতিদিন প্রতিটি শ্রেণির দুটি ক্লাস প্রচারিত হবে। ক্লাসের ব্যাপ্তি হবে ২০ মিনিট। বাংলা, ইংরেজি, গণিত ও সাধারণজ্ঞান বিষয়ের শ্রেণিপাঠ সম্প্রচার করা হবে। শুরুর প্রথম সপ্তাহে দুপুর ২টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ক্লাস চলবে তিনদিন। পরের সপ্তাহে মাধ্যমিকের সঙ্গে সমন্বয় করে সকাল ৯টা থেকে ক্লাস শুরু হবে এবং সপ্তাহে তিনদিন ক্লাস চলবে।

করোনাভাইরাসের কারণে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় শিক্ষার্থীদের লেখাপড়া চালিয়ে নিতে সরকার এই উদ্যোগ নিয়েছে। তবে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের তৈরি করা অভিজ্ঞ শিক্ষকদের তালিকা বাদ দিয়ে জেলা পর্যায় থেকে শিক্ষক এনে ক্লাস রেকর্ডিং করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। রেকর্ডিংয়ে সমন্বয়হীনতা রয়েছে বলে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন।

উল্লেখ্য, আগে ডিপিই অআনুষ্ঠানিকভাবে বলেছিল যে, ৫ এপ্রিল থেকে ক্লাস শুরু হবে।

এ ব্যাপারে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা সচিব আকরাম আল হোসেন বলেন, মাধ্যমিকে ক্লাস চলায় সংসদ টিভিতে শিডিউল, স্টুডিও, ক্যামেরাপারসন ও টেকনিশিয়ান পেতে একটু সমস্যা হওয়ায় ৫ এপ্রিলের পরিবর্তে ৭ এপ্রিল থেকে প্রাথমিকের ক্লাসগুলো প্রচার শুরু হবে।

তিনি বলেন, দুটি স্টুডিওতে রেকডিং হলেও এখন সেটি বাড়ানো হয়েছে। অনেক বেসরকারি প্রতিষ্ঠান এগিয়ে এসেছে। প্রথম সপ্তাহ একটু সীমিত পরিসরে হলেও পরের সপ্তাহে মাধ্যমিকের সঙ্গে সমন্বয় করে ক্লাস সংখ্যা বাড়ার পাশাপাশি সকালে প্রচারের চেষ্টা চলছে।

ডিপিই সূত্র জানায়, প্রতিদিন প্রতিটি শ্রেণির দুটি বিষয়ের ভিডিও ধারণ করা ক্লাস সংসদ টিভির মাধ্যমে সম্প্রচার করা হবে। প্রতিটি ক্লাস হবে ২০ মিনিটের। অভিজ্ঞ শিক্ষকদের মাধ্যমে ক্লাস রেকর্ডিং করতে মন্ত্রণালয় থেকে একটি তালিকা করে দেয়া হয়।

টিআর/ ০৫ এপ্রিল ২০২০