অনুভূতিতে আঘাত: ক্ষমা চাইলেন আইমান সাদিক


Dhaka
Published: 2020-07-02 23:12:18 BdST | Updated: 2020-08-15 13:48:29 BdST

আসসালামু আলাইকুম। আমি আয়মান সাদিক বলছি টেন মিনিট স্কুল থেকে। গত মাসে আমাদের দুইজন ইন্সট্রাক্টরের বিরুদ্ধে সমকামিতা সমর্থন ও ইসলাম বিদ্বেষের কথা ওঠে। নিজের এবং প্রতিষ্ঠানের দায়বদ্ধতার জায়গা থেকে এখানে আমার বক্তব্য তুলে ধরছি।

আমাদের কোন ইন্সট্রাক্টর এর নিজের ফেইসবুকে দেয়া পোষ্ট এবং কমেন্টের উপর টেন মিনিট স্কুলের কোনো প্রভাব এবং নিয়ন্ত্রণ নেই। এটা আমাদের সকল কর্মীর ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য। আমাদের বর্তমান কিংবা সাবেক কোনো কর্মীর ব্যক্তিগত মতাদর্শ টেন মিনিট স্কুল ধারণ কিংবা প্রচার করে না।

আমরা কখনোই কারো ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত করতে চাইনি। এসব নিয়ে আমাদের কোনো এজেন্ডা বা পরিকল্পনাও নেই। আমাদের শিক্ষার্থীরা আরও ভালো বলতে পারবে যে আমরা কখনো ধর্মীয় চেতনাকে আঘাত করে কোন ভিডিও দিয়েছি কিনা। তারপরেও অনেক ক্ষেত্রে আমাদের ভুল হয় এবং সেই জায়গা থেকেই আমরা খেয়াল করেছি যে আমাদের করা দুইটি ভিডিও অনেক সমালোচিত হয়েছে। ঋতুস্রাব এবং সম্মতি নিয়ে করা ওই দুইটি ভিডিওর উদ্দেশ্য কখনোই ইসলাম বিরোধী কোনো মতবাদকে প্রচার করা ছিল না। কিন্তু আমাদের ভিডিও দুইটির মেসেজ অনেকের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত করায় আমরা আন্তরিকভাবে দুঃখিত। আমরা যেভাবে সবাইকে এই সম্পর্কে অবগত করার চেষ্টা করেছিলাম সেই মেসেজটা আমরা পুরোপুরি দিতে পারিনি। এর দায়ভার আমার প্রতিষ্ঠান এবং আমার উপর বর্তায় এবং এর জন্য আমি ক্ষমাপ্রার্থী। আমরা এই দুইটি ভিডিও আমাদের সকল প্ল্যাটফর্ম থেকে ডিলিট করে দিয়েছি।

আমাদের এই দুইজন ইন্সট্রাক্টরের টেন মিনিট স্কুলের হয়ে করা অন্য ভিডিওগুলো প্রাতিষ্ঠানিক পড়াশোনার বিষয়ের উপর করা। এই ভিডিওগুলোতে তাদের ব্যক্তিগত মতাদর্শ প্রতিফলিত হয়নি। টেন মিনিট স্কুলে ভিন্ন ধর্মের এবং মতাদর্শের মানুষ শুরু থেকেই ক্লাস নিয়ে এসেছে এবং তারা তাদের নেয়া ক্লাসগুলোতে তাদের ব্যক্তিগত কোনো মতাদর্শ কখনোই প্রচার করেনি। সকল ধর্মের মানুষকে আমরা সমান ভাবেই অংশগ্রহণ ও নিজের প্রতিভা প্রতিফলনের সুযোগ করে দিয়েছি।

সবশেষে আমাদের সীমাবদ্ধতার জায়গা থেকে আমি একটি অনুরোধ করতে চাই। আমরা যেই ২০,০০০ ভিডিও তৈরি করেছি সেটার অনেক জায়গায় ভুল কিংবা ত্রুটি থাকতে পারে। আমাদের পক্ষে হয়তো কখনোই ১০০% নির্ভুলতার গ্যারান্টি দেয়া সম্ভব হবে না। এই জায়গাটায় সব সময়ই আমরা আমাদের শিক্ষার্থীদের সহযোগিতা পেয়ে এসেছি এবং যথাসম্ভব ভুলগুলো ঠিক করার চেষ্টা করেছি। এই জায়গাটায় তাই আবারও সবার একটু সহযোগিতা চাচ্ছি এবং অনিচ্ছাকৃত ভুল গুলোর জন্য আন্তরিকভাবে ক্ষমা চাচ্ছি।

লেখাটি টেন মিনিট স্কুল টিম পেইজ থেকে নেয়া