অনলাইন ক্লাসে বাজে মন্তব্য করলেই শাস্তি


টাইমস ডেস্ক
Published: 2020-10-10 17:53:11 BdST | Updated: 2020-10-20 05:35:33 BdST

করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে দেশের সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ হওয়ার পর অনলাইনে ক্লাস শুরু করে ঢাকা কলেজ কর্তৃপক্ষ। গত ১ এপ্রিল উচ্চ মাধ্যমিকের ক্লাস শুরুর কিছুদিন পরই অনার্স ও মাস্টার্সের অনলাইন ক্লাস শুরু হয়। সর্বশেষ গত ৪ অক্টোবর শিক্ষামন্ত্রীর উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে শুরু হয় সদ্য ভর্তি হওয়া একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের অনলাইন ক্লাস।

উচ্চ মাধ্যমিকের অনলাইন ক্লাস কলেজটির অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে সরাসরি সম্প্রচার করা হয় এবং ইউটিউবে আপলোড দেয়া হয়। অন্যদিকে অনার্স ও মাস্টার্সের ক্লাস স্ব-স্ব বিভাগের ফেসবুক পেজ ও ইউটিউব চ্যানেলে আপলোড দেয়া হয়।

এসব ক্লাস সবার জন্য উন্মুক্ত। অর্থাৎ ঢাকা কলেজসহ যেকোনো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা এই অনলাইন ক্লাস দেখতে পারেন এবং শিক্ষার্থী কমেন্টে তাদের মতামতও জানাতে পারেন।

এবার নতুন এক নির্দেশনা দিয়েছে কলেজ প্রশাসন। শিক্ষার্থীদের কমেন্ট বক্সে অপ্রাসঙ্গিক কোনো কমেন্ট করা যাবে না। অপ্রাসঙ্গিক কোনোকিছু পেলে তার বিরুদ্ধে নেয়া হবে আইনানুগ ব্যবস্থা।

ঢাকা কলেজের নিবিড় পর্যবেক্ষণ কমিটির (নিপক) আহ্বায়কের পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। এতে শিক্ষার্থী ও সংশ্লিষ্ট সকলকে অপ্রাসঙ্গিক মন্তব্য প্রদান হতে বিরত থাকার আহ্বান জানানো হয়েছে। এরপরও কেউ যদি অপ্রাসঙ্গিক মন্তব্য করেন, তাহলে প্রথমে তাকে পেজ থেকে ব্লক করা হবে এবং পরবর্তী সময়ে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। ক্লাস কনটেন্ট সম্পর্কিত প্রাসঙ্গিক প্রশ্ন কমেন্ট বক্সে করা যাবে।

বৈশ্বিক প্রেক্ষাপট বিবেচনায় অনলাইন ক্লাসের কোনো বিকল্প নেই। লাইভ ক্লাসগুলো শুধু ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীদের জন্য সীমিত না রেখে সকল শিক্ষার্থীর কল্যাণের জন্য উন্মুক্ত করা হয়েছে বলেও ওই বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ঢাকা কলেজের নিবিড় পর্যবেক্ষণ কমিটির (নিপক) আহ্বায়ক ও ইংরেজী বিভাগের বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর পুরঞ্জয় বিশ্বাস বলেন, অপ্রাসঙ্গিক বা কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য কখনই সমাজে গ্রহণযোগ্য নয়। আমাদের নোটিস শিক্ষার্থীদের জন্য সতর্কবার্তা ৷ যদি কোনো শিক্ষার্থী সমাজ, রাষ্ট্র বা ধর্মীয় উস্কানিমূলক মন্তব্য করেন আর তিনি যদি ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থী হন, তাহলে প্রথমে তাকে কলেজ থেকে টিসি দেয়া হবে। বাইরের কোনো শিক্ষার্থী বা কেউ যদি এ রূপ মন্তব্য করেন তাহলে আমরা তার তথ্য অইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে সরবারাহ করব, যাতে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা তারা গ্রহণ করতে পারেন।