বাড়িতে বসেই বিশ্ববিদ্যালয়ের ফাইনাল সেমেস্টার!


Kolkata
Published: 2020-06-14 09:27:30 BdST | Updated: 2020-08-14 13:56:02 BdST

ভারতে প্রতিদিনই লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। এমতাবস্থায় বিশ্ববিদ্যালয়ে ঝুলে থাকা পরীক্ষা নিলে হিতে বিপরীত হতে পারে শিক্ষামহলের! শনিবার শিক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে উপাচার্যদের বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে, ফাইনাল সেমেস্টার নেওয়া হবে না। বিকল্প ভাবনা হিসেবে উঠে এসেছে, বাড়ি থেকে মূল্যায়ন। তবে এব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

কীভাবে বাড়িতে বসে মূল্যায়ন?

পড়ুয়াদের ৫০ শতাংশ নম্বরের মূল্যায়ন হবে গত বছরের রেজাল্টের উপরে। সূত্রের খবর,বাকি ৫০ শতাংশের মূল্যায়নের ক্ষেত্রে চারটি প্রস্তাব ভাবা হয়েছে।

অনলাইনে পড়ুয়ারা পরীক্ষা দেবেন। ইউজার আইডি ও পাসওয়ার্ড দিয়ে লগ ইন করে প্রশ্নের উত্তর দেবেন।

অ্যাসাইনমেন্ট দেওয়া হতে পারে পড়ুয়াদের। সেই অ্যাসাইনমেন্টের ভিত্তিতে দেওয়া হবে নম্বর। অনলাইনে মৌখিক পরীক্ষাও নেওয়া হতে পারে।

মূল্যায়নের জন্য বিষয়ের উপরে প্রজেক্ট দেওয়া হতে পারে ছাত্রছাত্রীদের।

সেপ্টেম্বর থেকে নতুন শিক্ষাবর্ষ শুরু করতে চাইছে বিশ্ববিদ্যালয় অনুদান কমিশন (UGC)। সে কারণে তার আগে ফাইনাল পরীক্ষা নিতে হবে। কিন্তু এখন ট্রেন বন্ধ, যানবাহন অপ্রতুল, এর পাশাপাশি করোনা সংক্রমণ ঊর্ধ্বমুখী। এই পরিস্থিতিতে পরীক্ষা নিলে ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে সংক্রমণের আশঙ্কা থাকে। অনেক পড়ুয়াই দূরে থাকেন, তাঁরা পৌঁছতে পারবেন না পরীক্ষাহলে। সব দিক বিবেচনা করে দিন বৈঠকে শিক্ষামন্ত্রী ও উপাচার্যরা সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, ফাইনাল সেমিস্টার নেওয়া হবে না। বাড়ি থেকেই মূল্যায়নের ব্যবস্থা করা হবে। প্রস্তাবে চূড়ান্ত শিলমোহর দেবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।