পর্দা মানার নির্দেশনা: জাতির কাছে ক্ষমা চাইলেন জনস্বাস্থ্যের পরিচালক


Dhaka
Published: 2020-10-30 00:32:22 BdST | Updated: 2020-12-05 18:05:14 BdST

জনস্বাস্থ্য ইন্সটিটিউটের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ‘‘পর্দা মেনে’’ চলার বিজ্ঞপ্তি জারি করার পর সমালোচনার মুখে জাতির কাছে ক্ষমা চেয়েছেন পরিচালক আব্দুর রহিম।

বৃহস্পতিবার (২৯ অক্টোবর) সন্ধ্যায় নতুন করে দেওয়া এক বিজ্ঞপ্তিতে আগের দেওয়া নির্দেশনা বাতিল বলে ঘোষণা করেন তিনি।

নতুন বিজ্ঞপ্তিতে আব্দুর রহিম বলেন, “উক্ত বিজ্ঞপ্তিতে প্রকাশিত সংবাদটির জন্য আন্তরিকভাবে দুঃখিত এবং সকলের কাছে অনিচ্ছাকৃত এই বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের জন্য অন্তরের অন্তঃস্থল থেকে দুঃখপ্রকাশ করছি।”

“সেই সাথে গোটা জাতির কাছে বিনীতভাবে ক্ষমা প্রার্থনা করছি এবং ভবিষ্যতে এই ধরনের ভুল হবে না বলে প্রতিজ্ঞা করছি।”

এর আগে, গত বুধবার (২৮ অক্টোবর) মুসলিম ধর্মাবলম্বী নারী ও পুরুষদের জন্য ড্রেস কোড নির্ধারণ করে একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করেন তিনি।

ওই বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, “অত্র ইনস্টিটিউটের সকল কর্মকর্তা কর্মচারীদের অবগতির জন্য জানানো যাচ্ছে যে, অফিস চলাকালীন সময়ে মোবাইল সাইলেন্ট/বন্ধ রাখা এবং মুসলিম ধর্মাবলম্বীদের জন্য পুরুষ টাকনুর ওপরে এবং মহিলা হিজাবসহ টাকনুর নিচে কাপড় পরিধান করা আবশ্যক এবং পর্দা মানিয়া চলার জন্য নির্দেশ প্রদান করা হলো।”

বিষয়টি বিভিন্ন গণমাধ্যমে উঠে আসলে ইনস্টিটিউটের পরিচালক আব্দুর রহিমকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয় সরকার।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য সেবা বিভাগ থেকে জারি করা ওই নোটিশে পর্দা মেনে চলার বিজ্ঞপ্তিটি কোন বিধিবলে এবং কোন কর্তৃপক্ষের অনুমোদনক্রমে জারি করা হয়েছে তার স্পষ্টিকরণ ও ব্যাখ্যা আগামী তিন কর্মদিবসের প্রদান করার নির্দেশ দেওয়া হয়।