যেভাবে এল বিশ্ব বই দিবস


ঢাকা
Published: 2019-04-23 20:25:08 BdST | Updated: 2019-10-21 07:00:20 BdST

আজ (২৩ এপ্রিল) বিশ্ব বই দিবস। ১৯৯৫ সাল থেকে ইউনেস্কোর উদ্যোগে প্রতিবছর এই দিবসটি পালিত হয়ে আসছে। বই পড়া, বই ছাপানো ইত্যাদি এই দিবসটির মূল উদ্দেশ্য। আর পাশাপাশি বইয়ের কপিরাইট সংরক্ষণ করার বিষয়টিকে জোর দেওয়া হয় বলে এই দিনটিতে কপিরাইট দিবসও বলা হয়।

যেভাবে আসে দিনটি-

বিশ্ব বই দিবসের মূল ধারণা আসে স্পেনের লেখক ভিসেন্ত ক্লাভেল আন্দ্রেসের কাছ থেকে। ১৬১৬ সালের এই দিনে মারা যায় স্পেনের এক বিখ্যাত লেখক মিগেল দে থের্ভান্তেস। তারই ভাবশিষ্য ছিল আন্দ্রেস। নিজের প্রিয় লেখককে স্মরণীয় করে রাখতেই ১৯২৩ সালের ২৩ এপ্রিল থেকে আন্দ্রেস স্পেনে বিশ্ব বই দিবস পালন করা শুরু করেন

এরপর দাবি ওঠে প্রতিবছরই দিবসটি পালন করার। অবশ্য তার দাবি নজরে আসেনি কারোর। এই দিনটির বাস্তব স্বীকৃতি পেতে আন্দ্রেসকে তাই অপেক্ষা করতে হয় বহুদিন।

অবশেষে ১৯৯৫ সালে ইউনেস্কো দিনটিকে বিশ্ব বই দিবস হিসেবে স্বীকৃতি দেয় এবং পালন করতে শুরু করে। এরপর থেকেই প্রতিবছর বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ২৩ এপ্রিল বিশ্ব বই দিবস হিসেবে পালিত হয়ে আসছে।

২৩ এপ্রিল যে শুধুমাত্র বিশ্ব বই দিবস তা নয়। আজ শেক্সপিয়র, সত্যজিৎ রায়, ইনকা গার্সিলাসো ডে লা ভেগাসহ প্রমুখ খ্যাতিমান সাহিত্যিকদের জন্ম ও প্রয়ান দিবসও। আর এ কারণেও ২৩ এপ্রিলকে বিশ্ব বই দিবস হিসেবে বেছে নেওয়া হয়েছে বলে ধারণা অনেকের।