বন্ধ হয়ে গেল বইঘর ‘দীপনপুর’


Dhaka
Published: 2020-06-14 14:54:40 BdST | Updated: 2020-08-10 13:46:51 BdST

মহামারি করোনা ভাইরাস পরিস্থিতিতে বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে প্রকাশক ফয়সল আরেফীন দীপনের স্মৃতিবিজড়িত বইঘর ‘দীপনপুর’। জানা গেছে, তিন বছর ধরে ধারাবাহিক লোকসানের পর এই দুর্যোগ পরিস্থিতিতে আর সামলে উঠতে পারেনি প্রতিষ্ঠানটি।

শনিবার (১৩ জুন) প্রথম আলোর সাহিত্য সম্পাদক আলতাফ শাহনেওয়াজ এ বিষয়ে একটি স্ট্যাটাস দেন। ফেসবুকে তিনি বলেন, নানা কাজের তাড়ায় সারাদিন ফেসবুকে বসার সময় পাইনি। এখন ফেসবুক খুলতেই মনটা দমে গেল মুহূর্তেই। মরে গেল মনটা। জলি আপা পোস্ট দিয়েছেন, ‘দীপনপুর বন্ধ হয়ে গেল।’

‘আহ দীপনপুর!
এটা কেবল বইয়ের দোকান আর লেখকদের আড্ডাবাজির জায়গা ছিল না, ছিল একজন মানুষের প্রবল ভালোবাসার সৌধ। শাহজাহান তাজমহল বানিয়েছিলেন, আর Razia Rahman Jolly আপা দীপনপুর।’

‘ঘাতকের হাতে নৃশংসভাবে খুন হওয়া প্রকাশক ফয়সল আরেফীন দীপন ভাইয়ের স্মৃতিকে বাঁচিয়ে রাখতে তার সহধর্মিনী জলি আপা কতটা লড়াই করেই না এই প্রতিষ্ঠানকে এগিয়ে নিচ্ছিলেন। কিন্তু করোনাকাল প্রথমেই খেয়ে ফেলল দীপনপুরকে। বইয়ের দোকানকে।’

তিনি আরও বলেন, দীপনপুরের ছবিগুলো দেখছি, আর চোখের সামনে ভেসে উঠছে এই প্রতিষ্ঠানকে ঘিরে গত কয়েক বছর ধরে জলি আপার লড়াই। তুমুল লড়াই। পাশাপাশি খানিকটা অপরাধ বোধ হচ্ছে এজন্যও যে, আমরা সবাই এগিয়ে এলে হয়তো প্রতিষ্ঠানটি বাঁচত।

‘কী বলি, দীপনপুর বন্ধ হয়ে গেলেও ভালোবাসা হারেনি জলি আপা।’

২০১৫ সালের ৩১ অক্টোবর শাহবাগের আজিজ সুপার মার্কেটে জাগৃতি প্রকাশনীর কার্যালয়ে উগ্রবাদীদের হামলায় নিহত হন প্রকাশক দীপন। তার স্মৃতি ও চেতনাকে ধরে রাখতে স্ত্রী রাজিয়া রহমান জলি প্রতিষ্ঠা করেছিলেন দীপনপুর। ২০১৭ সালের ১৩ জুলাই দীপনের ৪৫তম জন্মদিনে যাত্রা শুরু করেছিল প্রতিষ্ঠানটি।