জবির মৃত ছাত্রলীগকর্মী ওয়াশির বাবা-মাও প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাত পাক


Dhaka
Published: 2019-10-16 00:51:10 BdST | Updated: 2019-11-20 15:47:14 BdST

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সন্মেলন চলাকালীন সময় ছাত্রলীগের যে একনিষ্ঠ কর্মী ওয়াসি হিটস্ট্রোকে মারা গেল, মৃত ওয়াসির বাবা-মাকে প্রধানমন্ত্রীর (আপা) সাথে একটু সাক্ষাৎ করার সুযোগ করে দিন। মৃত ওয়াসির মা-বাবা একটু সান্ত্বনা পাবে। আর ওয়াসি সেই সকাল থেকে সন্মেলনের দিন উত্তপ্ত গরমে সন্মেলন স্থলে বসা ছিল, প্রচণ্ড গরমেও সন্মেলন স্থল ছেড়ে যায়নি। একটু ভেবে দেখেন, ছাত্রলীগের কতো অন্তঃপ্রাণ কর্মী ছিল। আপনারা যারা গণভবনে আছেন, আপনাদের পক্ষ হতে মৃত সুলতান মোহাম্মদ ওয়াসির বাবা-মার সাথে যোগাযোগ করে আপার সাথে সাক্ষাতের একটু সুযোগ দিন।

প্রসঙ্গত,জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে (জবি) শাখা ছাত্রলীগের সম্মেলন চলাকালে এক শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে। ২০ জুলাই শনিবার বিকেল পাঁচটার দিকে ওই ঘটনা ঘটে। হিট স্ট্রোকে তাঁর মৃত্যু হয়েছে বলে চিকিৎসক ও বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে।মারা যাওয়া এই শিক্ষার্থীর নাম সুলতান মোহাম্মদ ওয়াসি। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন। ওয়াসি তাঁর মায়ের সঙ্গে রাজধানীর মিরপুরের আলব্দিতে ভাড়া বাসায় থাকতেন। তাঁর গ্রামের বাড়ি নোয়াখালী জেলায়

লেখক: মেহেদী হাসান মোল্লা, সাবেক সভাপতি, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ