ভাস্কর্য এবং মূর্তি একই বিষয়: চরমোনাই পীর রেজাউল


Dhaka
Published: 2020-11-18 04:57:32 BdST | Updated: 2020-11-30 11:00:09 BdST

ইসলামপন্থী যে দলগুলো ঢাকার ধোলাইপড়ে শেখ মুজিবে ভাস্কর্য নির্মাণের বিরোধিতা করছে, তার মধ্যে অন্যতম ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমীর সৈয়দ রেজাউল করীম বলেছেন, আওয়ামী লীগ ইসলামী শরিয়তের বিরুদ্ধে কিছু করবে না বলে যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল, সেটাই তারা এখন মনে করিয়ে দিয়েছেন।

"আমাদের প্রধানমন্ত্রী নির্বাচনের আগে যে ইশতেহার প্রকাশ করেছিলেন, সেখানে সে কিন্তু একটা কথা বলেছিলো যে শরিয়া বিরোধী কোন আইন সে পাস করবে না এবং শরিয়া বিরোধী কোন পদক্ষেপ সে গ্রহণ করবে না।"

তিনি ভাস্কর্য এবং মূর্তির মধ্যে কোন পার্থক্য মানতে রাজি নন।

"ভাস্কর্য এবং মূর্তি একই বিষয়। যেহেতু ইসলামী শরিয়ত এটাকে সমর্থন করে না, সে হিসাবে আমরা এটার প্রতিবাদ করেছি। আর সাথে আমরা বলেছিলাম, শেখ মুজিবুর রহমান বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশের স্বাধীনতায় যে ভূমিকা বা অবদান, এ ব্যাপারে তার জন্য দোয়া এবং তার রুহের মাগফেরাতের জন্যে আল্লাহর ৯৯ নাম খচিত একটা মিনার বা ঐ ধরনের একটা স্মৃতি যদি তৈরি করা যায়, তাহলে এর মাধ্যমে তার রুহের ওপর সোয়াব পৌঁছুতে থাকবে।"

ইসলামপন্থী কয়েকটি দলের এমন বক্তব্য নিয়ে আওয়ামী লীগের মাঠপর্যায়ের নেতাকর্মীদের মধ্যে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া হয়েছে। বগুড়া, রাজশাহী, চট্টগ্রাম, কুমিল্লাসহ কয়েকটি জেলায় দলটির কয়েকজন নেতার সাথে কথা বলে এমন ধারণা পাওয়া গেছে।

তারাও মনে করেন, এটি তাদের দলের নেতৃত্বকে অস্বস্তিতে ফেলেছে। তারা আশার করেন, সরকার এবং আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে শক্ত অবস্থান নেয়া প্রয়োজন।

আওয়ামী লীগের নীতিনির্ধারনী ফোরাম প্রেসিডিয়াম সদস্য এবং সিনিয়র মন্ত্রী ড: আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, তাদের দলের উচ্চপর্যায়েও বিষয়টি আলোচনা হয়েছে।

তিনি দাবি করেছেন, বিষয়টি তাদেরকে অস্বস্তিতে ফেলেনি।

"সখল ধর্মকেই আমরা সমান সম্মান করি। ধর্মীয় দৃষ্টিকোণ থেকে এটা বিচার করার কোন সুযোগ নাই। এটা শিল্প। আমরা মনে করি না যে সরকার কোন বিব্রতকর অবস্থায় পড়েছে। কেউ যদি কোন রাজনৈতিক উদ্দেশ্য থেকে এটা প্রচার করে বা ধর্মীয় দিক থেকে অপব্যাখ্যা দেয় - তা ঠিক হবে না।"

আওয়ামী লীগের আরও একাধিক সিনিয়র নেতা বলেছেন, তারা মনে করেন, বিষয়টাতে তাদের স্পষ্ট অবস্থান তুলে ধরা হবে।