জাবি উপাচার্যের অপসারণের দাবিতে পদযাত্রা ও সমাবেশ


JU
Published: 2019-10-15 19:10:00 BdST | Updated: 2019-11-20 15:47:13 BdST

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) উপাচার্য অধ্যাপক ড. ফারজানা ইসলামকে অপসারণের দাবিতে পদযাত্রা ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে আন্দোলনকারী শিক্ষক শিক্ষার্থীরা।

মঙ্গলবার দুপুরে 'দুর্নীতির বিরুদ্ধে জাহাঙ্গীরনগর' ব্যানারে বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান অনুষদ থেকে পদযাত্রাটি শুরু হয়। এরপর গুরুত্বপূর্ণ সড়কসমূহ প্রদিক্ষণ করে নতুন প্রশাসনিক ভবনের সামনে এক প্রতিবাদ সমাবেশের মধ্যে দিয়ে কর্মসূচির শেষ হয়।

প্রসঙ্গত, গত ৩ অক্টোবর উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলামের অপসারণের দাবিতে সপ্তাহব্যাপী নানা কর্মসূচির ঘোষণা দেন 'দুর্নীতির বিরুদ্ধে জাহাঙ্গীরনগর'র আন্দোলনরত শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। সেই কর্মসূচির অংশ হিসেবে আজ বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে পদযাত্রা ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এছাড়া আগামীকাল দুপুরে বিক্ষোভ মিছিল, ১৭ অক্টোবর সংহতি সমাবেশ এবং ১৯ অক্টোবর মশাল মিছিল অনুষ্ঠিত হবে বলে জানিয়েছেন দুর্নীতির বিরুদ্ধে জাহাঙ্গীরনগর ব্যানারের মুখপাত্র দর্শন বিভাগের অধ্যাপক রায়হান রাইন।

আজকের কর্মসূচিতে ছাত্র ফ্রন্ট জাবি শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক শোভন রহমানের সঞ্চালনায় দুর্নীতির বিরুদ্ধে জাহাঙ্গীরনগর ব্যানারের মুখপাত্র অধ্যাপক রায়হান রাইন বলেন, 'উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলাম ইতিমধ্যেই আমাদের কাছে অবাঞ্ছিত। আমরা উপাচার্যের অপসারণ দাবি করে আচার্যকে চিঠি লিখেছিলাম। কিন্তু দুঃখের সাথে দেখছি আমাদের চিঠির পর আচার্য এখনো পর্যন্ত কোন উত্তর করেননি। বরং আমাদের চিঠির বিপরীতে বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ অফিস থেকে প্রতিউত্তর করা হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ অফিস নিয়মিত ভাবে তার যা কাজ নয় সেটা করে যাচ্ছে, আমরা তাদের এই ব্যাখার উত্তর দিবো।'

তিনি আরো বলেন, 'উপাচার্যকে রক্ষার জন্য নতুন করে একটি সংগঠন গড়ে তোলা হচ্ছে। এই সংগঠন করার উদ্দেশ্য হলো তারা যে অন্যায় করছে সেগুলোকে ঢেকে দেওয়া। এরা সবাই উপাচার্যপন্থি এবং উপাচার্যপন্থি হওয়ার কারণেই তার দুর্নীতি, অনিয়ম, স্বেচ্ছাচারকে তারা সমর্থন দেবে।'

ছাত্র ইউনিয়ন জাবি সংসদের সদস্য রাকিবুল রনি বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রত্যেকে জানে উপাচার্যের স্বামী ও পুত্রের মধ্যস্থতায় উন্নয়ন প্রকল্পের টাকা লেনদেন হয়েছে। এ বিষয়টি ছাত্রলীগের একাধিক নেতা স্বীকারও করেছে। সালামির নামে কোটি কোটি টাকা লেনদেন করা হয়েছে। প্রকাশ্যে প্রমাণিত দুর্নীতিবাজ উপাচার্যকে অপসারণ করতে হবে। এজন্য আমরা সরকারের কাছে দাবি জানায়, এরকম দুর্নীতিবাজ উপাচার্যের হাত থেকে জাহাঙ্গীরনগরকে রক্ষা করুন।'

দুর্নীতির বিরুদ্ধে জাহাঙ্গীরনগর ব্যানারের অন্যতম সংগঠক সোহানুর রশীদ মুন বলেন, 'আমরা যে নৈতিক আন্দোলন শুরু করছি সেটা সঠিক পথে মোকাবেলা না করে, দুর্নীতিবাজ উপাচার্য পদত্যাগ না করে আমাদের বিরুদ্ধে নতুন করে আরেকটি সংগঠন দাঁড় করিয়েছে। আমরা উপাচার্যকে হুঁশিয়ার করে বলতে চাই আপনি আর এই পদে থাকার যোগ্য নন।'