অবশেষে মুক্তি পেলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র ফরহাদ


ঢাবি টাইমস
Published: 2020-07-28 17:26:20 BdST | Updated: 2020-08-14 13:26:08 BdST

জঙ্গি তৎপরতায় জড়িত সন্দেহে আটক ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী রেদওয়ান ফরহাদকে ছেড়ে দিয়েছে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।

আজ মঙ্গলবার পৌনে  ৫টার দিকে কক্সবাজার জেলা গোয়েন্দা কার্যালয় থেকে ওই শিক্ষার্থীকে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়। রেদওয়ানের বড় ভাই মোহাম্মদ ইসমাইলের বরাত দিয়ে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন ছাত্র অধিকার পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক রাশেদ খান।

এর আগে কক্সবাজারের মহেশখালী থেকে জঙ্গি তৎপরতায় জড়িত সন্দেহে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী রেদওয়ান ফরহাদ ও তার বড় ভাই রাশেদ খান মেননকে আটক করেছে।

জেলা গোয়েন্দা পুলিশের পরিদর্শক (ওসি-ডিবি) মানস বড়ুয়া বলেন, জঙ্গি তৎপরতায় জড়িত সন্দেহে রেদওয়ান ও তাঁর ভাই রাশেদকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। রেদওয়ানের বিরুদ্ধে একটি জঙ্গি সংগঠন গঠন করে তৎপরতা চালানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে। রেদওয়ান আরবি বিভাগের স্নাতকোত্তরের শিক্ষার্থী।

পুলিশ জানায়, ভুয়া জঙ্গি সংগঠনের সঙ্গে তিনি মোটেও জড়িত নন বলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে রেদওয়ান জানিয়েছে। তাঁকে ফাঁসানো হয়েছে। ঢাকা থেকে কক্সবাজারে আনা হচ্ছে তাঁকে।

জানা গেছে, জঙ্গি সম্পৃক্ততার অভিযোগে কক্সবাজার জেলায় সম্প্রতি কয়েকজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃতদের মোবাইল নম্বরের একটি সূত্র ধরে ঢাবি ছাত্র রেদওয়ান ফরহাদের বড় ভাই রাশেদ খান মেননকে আটক করা হয়। পরে রেদওয়ানকেও আটক করা হয়।

পারিবারিক সূত্র জানায়, গত বৃহস্পতিবার বেলা তিনটার দিকে উপজেলার কালারমারছড়া ইউনিয়নের ইউনুছখালী পশ্চিমপাড়া নিজ বাড়িতে যাওয়ার পথে রাশেদকে এবং পরদিন শুক্রবার বিকেলে নিজ বাড়ি থেকে রেদওয়ানকে তুলে নেয় ডিবি পুলিশ। তারপর থেকে দুই ভাইয়ের খোঁজ পাচ্ছে না পরিবার।

এদিকে রেদওয়ান ফরহাদের বড় ভাই মোহাম্মদ ইসমাইল বলেন, ডিবি পুলিশ পরিচয় দিয়ে সাদাপোশাকে সাত-আটজন লোক শুক্রবার বিকেলে বাড়িতে ঢুকে তাঁর ছোট ভাই রেদওয়ানকে নিয়ে যান। আগের দিন বৃহস্পতিবার বিকেলে তাঁর আরেক ভাই রাশেদকে একই কায়দায় তুলে নেওয়া হয়।