বিদ্যালয়ের সামনে সিএনজি স্ট্যান্ড


টাইমস অনলাইনঃ
Published: 2019-01-14 22:32:12 BdST | Updated: 2019-07-17 06:51:05 BdST

নরসিংদীর মনোহরদী উপজেলার চালাকচর বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে অবৈধভাবে সিএনজি স্ট্যান্ড বসানো হয়েছে। এ নিয়ে ভোগান্তিতে পড়েছে বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

সিএনজি স্ট্যান্ড বসিয়ে অর্থ-আদায়ের অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ফখরুল মান্নানের বিরুদ্ধে। ব্যবসায়ীদের হয়রানি, জমি দখল ও চাঁদাবাজির অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে।

তবে এসব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন ইউপি চেয়ারম্যান ফখরুল মান্নান মুক্ত। ফখরুল মান্নান মুক্ত চালাকচর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি।

স্থানীয়রা জানান, দুই বছর ধরে মনোহরদীর চালাকচর বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে গড়ে তোলা হয় সিএনজি অটোরিকশা স্ট্যান্ড। স্ট্যান্ড থেকে প্রতিদিন গড়ে দুই শতাধিক সিএনজি চলাচল করে। স্ট্যান্ডে ভর্তি বাবদ প্রতি সিএনজি থেকে দুই হাজার টাকা করে আদায় করা হয়। প্রত্যেক সিএনজি থেকে ২০ টাকা হারে প্রতিদিন ১২ হাজার টাকা চাঁদা তোলা হয়।

বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা জানায়, বিদ্যালয়ের সামনে স্ট্যান্ড হওয়ায় বিপাকে পড়ছি আমরা। প্রতিদিন কোনো না কোনো দুর্ঘটনা ঘটে। তাই এখান থেকে থেকে সিএনজি স্ট্যান্ড সরিয়ে নেয়ার দাবি জানাই।

চালাকচর বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. মোস্তফা হোসেন বলেন, সিএনজি স্ট্যান্ডটি অন্য স্থানে সরিয়ে নেয়া হয়েছে। এরপরও কিছু সিএনজি রাখা হয়। বিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে এসব সিএনজি সরিয়ে নেয়ার নির্দেশ দেয়া হবে।

এ বিষয়ে চালাকচর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ফখরুল মান্নান মুক্ত বলেন, একটি পক্ষ আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করেছে। বাস্তবে এসবের কোনো সত্যতা নেই। সিএনজি স্ট্যান্ডটি সরিয়ে নেয়ার জন্য প্রশাসনের কাছে লিখিত আবেদন দিয়েছি।

 

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।