যৌন হয়রানি করে বিপাকে ব্রাজিল–সমর্থক


টাইমস ডেস্ক
Published: 2018-06-23 18:05:04 BdST | Updated: 2018-09-26 19:20:35 BdST

সমর্থকেরা রাশিয়ায় খেলা দেখছেন, নাকি আমোদ-ফুর্তি করতে গেছেন, এখন আলোচনায় এটাই। দিন চারেক আগে এক জার্মান টিভি সাংবাদিককে চুমু খেয়ে প্রথম বিতর্কে জড়ান এক রাশিয়ান-সমর্থক। সেই ঘটনার রেশ এখনো কাটেনি। এর মধ্যেই আরেক ঝামেলায় জড়িয়েছেন ব্রাজিল-সমর্থকেরা।

গতকাল শুক্রবার কোস্টারিকাকে হারিয়ে পুরো ব্রাজিল যখন উল্লাসে ব্যস্ত, ঠিক তখন নিজেদের অপকর্মে ঝামেলায় পড়েছেন ব্রাজিলের কিছু ফুটবল-ভক্ত। রাশিয়ান এক টিভি সাংবাদিককে যৌন হয়রানি করার অভিযোগ উঠেছে তাঁদের বিরুদ্ধে।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ইতিমধ্যেই ব্রাজিলিয়ানদের কর্মকাণ্ডের ভিডিওটি বেশ ভাইরাল হয়েছে। ভিডিওতে দেখা গেছে, একাধিক ব্রাজিলিয়ান ভক্ত মিলে এক টিভি সাংবাদিককে পর্তুগিজ ভাষায় কিছু একটা বলছেন। স্থানীয় সেই সাংবাদিক ভাষা বুঝতে না পেরে সে কথাগুলোই আবার পুনরাবৃত্তি করছেন, তা শুনে হেসে গড়িয়ে পড়ছেন ওই সমর্থকেরা। পরে জানা গেছে, ব্রাজিলিয়ান ওই সমর্থকেরা যৌন হয়রানি ও বর্ণবাদী কথাবার্তা বলেছিলেন।

এমন কুকীর্তির কারণে ব্রাজিলেও এখন সমালোচনার ঝড়। রাশিয়ায় ব্রাজিলের নামের পাশে কলঙ্ক জোটানোয় দেশটির জনগণও বেশ ক্ষুব্ধ। তবে কিছু মানুষ পুরো ব্যাপারকে কৌতুক বলে উড়িয়ে দিচ্ছেন।

ব্যাপারটি যে এত সাড়া ফেলে দেবে, তা হয়তো উত্ত্যক্তকারীরা কল্পনা করতে পারেনি। ঘটনাটি এখন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ছাড়িয়ে আন্তর্জাতিক সংস্থার কাছেও পৌঁছে গেছে। রিও ডি জেনিরোর ইউনাইটেড ন্যাশনস উইমেন অফিস ঘটনাটির নিন্দা জানিয়ে বলেছে, ‘বিশ্বকাপের সময় ব্রাজিলিয়ান ভক্তদের এমন যৌন হয়রানি কখনোই মেনে নেওয়া যায় না। এটি নারীর মানবাধিকারকেও প্রশ্নবিদ্ধ করে।’

রাশিয়ান পত্রপত্রিকায় ব্যাপারটি বেশ ফলাও করে দেখানো হয়েছে। উত্ত্যক্তকারীদের শাস্তি দেওয়ার আবেদনও করা হয়েছে কিছু পত্রিকায়। খেলা দেখতে এসে শেষমেশ সাজা পেয়েও দেশে ফিরতে হতে পারে এই ব্রাজিলিয়ানদের।

এমএন/ ২৩ জুন ২০১৮

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।