ঢাবি ছাত্রী ইমিকে হয়রানির নিন্দা ছাত্র ইউনিয়নের


টাইমস অনলাইনঃ
Published: 2018-08-16 12:59:48 BdST | Updated: 2018-11-13 10:34:28 BdST

কোটা সংস্কার আন্দোলনের সঙ্গে জড়িত থাকায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শামসুন নাহার হলের ছাত্রী শেখ তাসনিম আফরোজ ইমিকে ডিবি কর্তৃক ক্যাম্পাস থেকে তুলে নেয়ার ঘটনার তীব্র নিন্দা জানান বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সংসদ।

বুধবার রাতে ঢাবি সংসদের সভাপতি ফয়েজ উল্লাহ ও সাধারণ সম্পাদক রাজীব দাস এক যৌথ বিবৃতিতে বলেন, ‘শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তার যে দায়িত্ব প্রক্টরের উপর ন্যস্ত তা তিনি পালনে ব্যর্থ হয়েছেন। বিগত সময়েও দেখা যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা দিতে তিনি ব্যর্থ হয়েছেন।’

বিবৃতিতে তারা বলেন, ‘আমরা গভীরভাবে লক্ষ্য করলাম দেশ জুড়ে ধরপাকড়ের যে সংস্কৃতি সরকার শুরু করেছে তার আঁচড় থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরাও রেহায় পাচ্ছে না। বিশ্ববিদ্যালয় থেকে একজন শিক্ষার্থীকে রাতবিরাতে অপহরণীয় কায়দায় তুলে নিচ্ছে সরকার তাতে ক্রমাগত সরকারের স্বৈরাচারী রূপ স্পষ্ট হয়ে উঠছে।’

বিবৃতিতে আরও বলেন, ‘১৫ আগস্টের শোক ক্ষণের পূর্বমূহুর্তে শিক্ষার্থীদের উপর এমন দমন-নিপীড়ণ-নির্যাতনের যে চিত্র সরকার প্রদর্শন করছে তা ইয়াহিয়া-সরকারেরই প্রতিচ্ছবি। গণতন্ত্রের লেবাসধারী স্বৈরাচারী সরকার এবং তার তাবেদার বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের প্রতি হুঁশিয়ারি জানিয়ে অবিলম্বে এই দমন-নিপীড়ন বন্ধের দাবি করা হয়।’ সেই সাথে কোটা সংস্কার ও নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলনে আটককৃত শিক্ষার্থীদের নিঃশর্ত মুক্তি দেয়ার দাবি জানানো হয় বিবৃতিতে।

প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টার পর ইমিকে হলের সামনে থেকে ডিবি পরিচয়ে পুলিশের একটি দল তুলে নেয়। ইমি কোটা সংস্কার আন্দোলনের সঙ্গে জড়িত ছিল। গুজব ছড়ানোর অভিযোগে তাকে তুলে নেয়া হয় বলে জানা যায়। পরে রাত ১২টার পর জিজ্ঞাসাবাদ করে মুচলেকা নিয়ে ছেড়ে দেয় পুলিশ।

 

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।