নিজের খাবার বিলিয়ে দিব অনাহারির মুখে


ঢাবি টাইমস
Published: 2018-09-16 15:44:02 BdST | Updated: 2018-10-15 18:56:45 BdST

'সবার সুখে হাসাবো আমি কাঁদবো সবার দুঃখে, নিজের খাবার বিলিয়ে দিব অনাহারির মুখে'কবিতার এই চরণগুলো যেন লেখা হয়েছে গোলাম রাব্বানীর জন্য। 

ঘটনা ১ঃ

জানা যায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এর এ এফ রহমান হল এর সামনে এক অসহায় দরিদ্র লোককে অচেতন অবস্থায় পায় ছাত্রলীগের এক কর্মী।। তাকে প্রাথমিক ভাবে মাথায় পানি দিয়ে একটু সুস্থ করার পর তার অবস্থা সম্পর্কে জানতে চাইলে সে বলে, গত তিন দিন যাবত তার পরিবার ঠিক মত খেতে পারে না বলে সে মানসিক ভাবে অসুস্থ হয়ে পড়ে। সে একজন রঙ মিস্ত্রী, তার তের দিনের মজুরি নিয়ে এক ধোঁকাবাজ কনডাক্টর পালিয়ে যায়। এতে করে সে আরো মানসিক ভাবে ভেংগে পড়ে এবং না খাওয়ার কারনে অজ্ঞান হয়ে রাস্তায় পড়ে যায়।।

... 

অতঃপর রাস্তার পাশ দিয়ে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ এর সাধারন সম্পাদক গোলাম রাব্বানী যাওয়ার সময় লোকটিকে দেখতে পেয়ে নেমে আসেন। এবং লোকটির ঘটনা শুনে দুঃখ প্রকাশ করেন এর পর নিজের খাবার লোকটিকে দিয়ে দেন এবং লোকটির তের দিনের মজুরিসহ নগদ অর্থ দিয়ে তাকে সাহায্য করেন। লোকটিকে নিজ পরিবারের কাছে পৌছানোর ব্যবস্থা করেন।

মোঃ শান্ত নামের এ ব্যাক্তি বলেন আমাকে আমার মায়ের কাছে দিয়ে পাঠান। আমার ভয় লাগে। তার এ কথা শুনে ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক তাকে রিক্সা দিয়ে তার মায়ে কাছে পাঠানোর ব্যবস্থা করেন।

গোলাম ইতিমধ্যে বিভিন্ন মানবিক কাজ করে সাধারণ শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে মানবতার ফেরিওয়ালা উপাধি পেয়েছেন। 

হতদরিদ্র্যকে ভ্যান কেনার অর্থ দিল ছাত্রলীগ

ঘটনা ২ঃ

এর আগে একজন হতদরিদ্র্যকে ভ্যান কেনার অর্থ দিয়েছে ছাত্রলীগ।রবিবার দুপুরের মধুর ক্যান্টিনে হতদরিদ্র্য ব্যক্তির হাতে ভ্যান কেনার অর্থ তুলে দেন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি রেজয়ানুল হক চৌধুরী শোভন এবং সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী। এসম সাথে ছিলেন ঢাবি ছাত্রলীগের সভাপতি সঞ্জিত চন্দ্র দাস এবং সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী।

ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী বলেন, হালিম ভাই; মাদারীপুর জেলার শিবচরের অধিবাসী পেশায় ভ্যানচালক। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও এর আশেপাশের এলাকায় ভ্যানগাড়ীতে মালামাল বহনের মাধ্যমে জীবিকা নির্বাহ করেন। গত মাসে রাতে ঘুমন্ত অবস্থায় তার ভ্যানটি চুরি হয়ে গেলে অকুল পাথারে পড়েন তিনি। প্রিয় দুই সন্তানের লেখাপড়া, সংসার চালানো ও অন্যায় অত্যাবশ্যক খরচ চালানো সব কিছুও অনিশ্চিত হয়ে পড়ে। অনেকের কাছে ধরনা দিয়েও আশানুরুপ সাড়া পাননি। একজন ছাত্রলীগ কর্মীর মাধ্যমে তার অসহায়ত্বের বিষয়টি আমার নজরে এলে আমরা ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে হালিম ভাইকে ছাত্রলীগের একটি 'ভ্যানগাড়ি' উপহার দেয়া হয়।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।