ডাকসু ভিপি নুরের ওপর হামলার প্রতিবাদে ঢাবি ও জাবিতে মানববন্ধন


ঢাকা
Published: 2019-08-20 17:27:55 BdST | Updated: 2019-09-23 06:56:06 BdST

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) ভিপি নুরুল হক নূরের উপর বারবার সন্ত্রাসী হামলার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। একইসঙ্গে তার নিরাপত্তা ব্যবস্থা করার দাবি জানিয়েছেন তারা।

আজ মঙ্গলবার দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অপরাজেয় বাংলার পাদদেশে আয়োজিত এক মানববন্ধন থেকে এ দাবি জানানো হয়। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থী বৃন্দ’র ব্যানারে এ কর্মসূচির আয়োজন করা হয়।

মানববন্ধনে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী নুসরাত তাবাসসুম বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিপি যদি হামলার শিকার হতে পারে সেখানে আমরা কেউ নিরাপদ না। ভিপি আক্রান্ত হয়েছেন তার নিজের এলাকাতে। কাল আমরা হামলার শিকার হতে পারি আমাদের এলাকাতে।

এসময় হামলাকারীদের বিচার দাবি করে তিনি বলেন, যদি এদের বিচার না করা হয় তাহলে এই সন্ত্রাসীদের সাহস বেড়ে যাবে। তারা বার বার সন্ত্রাসী কার্যক্রম চালাতে সাহস পাবে।

হাসানুল হক বান্না বলেন, ‘ডাকসুর ভিপির উপর হামলা হয়েছে। আপনারা জানেন কে বা কারা হামলা করেছে। আমি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন শিক্ষার্থী হিসাবে এই হামলার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। সাথে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে বিচারের আবেদন করছি।’

তিনি বলেন, ‘আপনারা দেখেছেন বর্তমান প্রতিটি হামলার সাথে ক্ষমতাসীন সংগঠন ছাত্রলীগ জড়িত। আমরা প্রধানমন্ত্রীর কাছে আবেদন জানাই, তিনি যেন নুরুল হক নুরকে নিরাপত্তা দেন এবং দোষীদেন শাস্তির আওতায় আনেন।’

মানবন্ধনে আরও উপস্থিত ছিলেন, সোহরাব হোসেন, শেখ এ্যামিলি জামাল, আকরাম হোসেন, নাহিদ ইসলাম, রামিম সহ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্ধশতাধিক শিক্ষার্থী।

ডাকসু ভিপি নুরের ওপর হামলার প্রতিবাদে জাবিতে মানববন্ধন

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) ভিপি নুরুল হক নুরের ওপর হামলার প্রতিবাদে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে মানববন্ধন করেছে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ।

মঙ্গলবার (২০ আগস্ট) দুপুর ১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের জাবি শাখার যুগ্ম আহ্বায়ক আরিফুল ইসলাম বলেন, ‘আমরা সাধারণের অধিকারের কথা বলি। দেশের যেকোনো অন্যায়, অনিয়ম, দুর্নীতির প্রতিবাদ করি। যা সরকার ও ক্ষমতাসীনদের মাথাব্যথার কারণ। এজন্য ক্ষমতাসীন দল নানা ধরনের হামলা ও মামলা দিয়ে আমাদের দমিয়ে রাখতে চায়, আমাদের কণ্ঠ রোধ করতে চায়। আমরা সরকারকে স্পষ্ট বলে দিতে চাই আমাদের শেষ বিন্দু রক্ত পর্যন্ত দেশের জনগণের যেকোনো অধিকার রক্ষায় লড়ে যাব।’

জাবি শাখার যুগ্ম আহ্বায়ক জয়নুল আবেদিন শিশির বলেন, ‘বাংলাদেশের মানুষকে ভয়ার্ত পরিবেশের মধ্যে রাখা হয়েছে। এর মধ্যে গুটিকয়েক মানুষ প্রতিবাদ করে আসছে। একইভাবে ডাকসুর ভিপি নুরুল হক নুরের ওপর বার বার নির্যাতন, নিপীড়ন ও হামলা করা হয়েছে। এসকল হামলা-মামলার কারণে আমরা বিভিন্নভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছি। সরকারকে বলতে চাই এসকল হামলা, নিপীড়ন যদি চালিয়ে যাওয়া হয় তাহলে বাংলার মানুষ বসে থাকবে না।’

জাবি শাখার সমন্বয়ক আবু সাইদ বলেন, ‘অপরাধীরা অপরাধ করছে কিন্তু তারা রাজনৈতিকভাবে শেল্টার পেয়ে যাচ্ছে। মত প্রকাশ করতে গিয়ে যদি হামলা মামলার শিকারহতে হয় তাহলে এটা হবে গণতন্ত্রের জন্য হুমকি।’

উল্লেখ্য, গত ১৪ আগস্ট (বুধবার) পটুয়াখালীর গলাচিপায় ডাকসু ভিপি নুরুল হক নুরের ওপর হামলার ঘটনা ঘটে। এতে নুরের সঙ্গে থাকা তার অন্তত ২৫ জন সঙ্গী আহত হন। এ সময় নুরের বহরে থাকা ১০টি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করা হয় বলে দাবি করা হয়।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।