ছাত্রলীগের সহায়তা পেয়ে কৃতজ্ঞ ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা


ঢাবি টাইমস
Published: 2019-09-20 20:12:13 BdST | Updated: 2019-10-22 09:28:59 BdST

শুক্রবার সকালে দেখা যায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের সামনে বসে আছেন ডাকসুর এজিএস ও ঢাবি ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন। তিনি শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন কেন্দ্র দেখিয়ে দিচ্ছেন এবং তাদেরকে পানি, কলম দিচ্ছে ।এ কাজে মুগ্ধ হয়েছেন ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের অভিভাবকরা।

শুক্রবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ক ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শিক্ষার্থীদের সাথে এসেছিলেন তাদের অভিভাবকরা। তাদের সেবায় প্রাণপণ চেষ্টা করে যাচ্ছে ঢাবি ছাত্রলীগের নেতা ও কর্মীরা। একই স্থানে আরেক স্থানে পৌঁছে দিতে চালু করা হয়েছে জয়বাংলা বাইক সার্ভিস।

ঢাবি ছাত্রলীগের  শীর্ষ দুই নেতা এক জায়গা থেকে আরেক জায়গায় ছুটে যাচ্ছেন ছাত্রলীগের সেবা পৌঁছে দিতে। তারা নিজ হাতে পৌঁছে দেন পানি ও কলম।

এ সময় ঢাবি ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সরাসরি কথা বলেন শিক্ষার্থীদের অভিভাবকদের সাথে এবং তাদের অনেক সমস্যার সমাধান করে দেন।

ঢাবি ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম বলেন, ভর্তি পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের এবং তাদের অভিভাবকদের সহায়তায় তৎপর থাকবে এবং শিক্ষার্থীদের জন্য সহায়তা কার্যক্রম অব্যাহত রাখব।

"ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে এসে কোন শিক্ষার্থী সমস্যার সম্মুখীন হলে তাদের সেবা দিতে সদাপ্রস্তুত ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।"

ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীর এক অভিভাবক বলেন , ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ যে কাজটি করে যাচ্ছে এরকম সেবা আর কোথাও পাওয়া যাবে বলে মনে হয়না। আজ ছাত্রলীগের জয় বাংলা বাইক সার্ভিস না থাকলে আমার মেয়ে হয়তো পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারত না।

.

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ক ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষা শুরু হওয়ার প্রাক্কালে কলাভবনের সামনে এসে এক ছাত্রী জানতে পারেন, তার সিট পড়েছে মতিঝিলের একটি স্কুলে। এটা শুনেই কাঁদতে শুরু করেন। কলাভবনের পিছনের গেট থেকে ইমরান নামে ছাত্রলীগের এক কর্মী তাকে নিয়ে মধুর ক্যান্টিনের সামনে আসেন। কান্নারত ছাত্রীটি যখন ঢাবি ছাত্রলীগের সিফাতের "জয় বাংলা" বাইক সার্ভিসের মাধ্যমে পরীক্ষার হলে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হচ্ছিল তখনও ওড়না দিয়ে চোখের জল মুছছিলেন। অবশেষে তাকে তার পরীক্ষার হলে যথা সময়ে পৌঁছে দেয়া হয়।