ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র সিফাতকে বেধড়ক মারধর


সীতাকুণ্ড
Published: 2020-08-08 20:54:45 BdST | Updated: 2020-09-20 17:50:13 BdST

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের ছাত্র সালেহ উদ্দিন সিফাতের উপর তার নিজ এলাকা সীতাকুণ্ডুর বাড়িয়া এলাকায় হামলা হয়েছে।

সীতাকুণ্ডুর ঢালা ইউনিয়ন ছাত্রলীগ এ হামলা চালিয়েছে বলে অভিযোগ নির্মমভাবে হামলার শিকার সিফাতের।

ছাত্র অধিকার পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক রাশেদ খান জানান, সিফাত ফেনীর উদ্দেশ্য সীতাকুণ্ড থেকে রওনা দিয়েছিলো। বড়দারোগার হাট বাজারে আসতেই ৩ টা সিএনজি করে সিফাতকে জোরপূর্বক তুলে নিয়ে যায়। এরপর তাকে ৪৫ মিনিট ধরে চৌকাঠ দিয়ে নির্মমভাবে নির্যাতন করে। বর্তমানে সিফাতের অবস্থা খুবই খারাপ।
ওর ব্যাগে থাকা ল্যাপটপ ও মোবাইল, মানিব্যাগ ছিনতাই করে নিয়েছে। সিফাতের সাথে তাদের কোন পূর্ব শত্রুতা ছিলোনা।ক্যাম্পাসে রাজনীতি করে এটিই তার অপরাধ।

রাশেদ বলেন, মারার সময় বলেছে, এখন তোর বাপ নুরুকে ডাক। ক্যাম্পাসে তো বহুত লাফাস, যাতা বলিস। তোর বাপকে বল তোকে উদ্ধার করে নিয়ে যেতে.......।

তিনি জানান, স্থানীয় একজন সিফাতকে নিয়ে ফেনীতে একটা হাসপাতালে ভর্তি করেছে। সিফাতকে মূলত চৌকাঠ দিয়ে মেরে পুরো শরীর থেঁতলিয়ে দেওয়া হয়েছে। মাংসপেশিগুলোতে বেশি আঘাত করেছে। নির্যাতনের পরে সিফাতের পুরো শরীর থরথর করে কাঁপছিলো। নিজে হাটতে পারছিলো না।