বরগুনা সভাপতির বাল্য বিবাহ: কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের শোকজ


Dhaka
Published: 2020-09-16 20:34:04 BdST | Updated: 2020-10-22 18:53:56 BdST

বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাংগঠনিক নির্দেশ অমান্য করায় বরগুনা জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জুবায়ের আদনান অনিক ও সাধারণ সম্পাদক তানভীর হোসেনকে শোকজ নোটিশ পাঠিয়েছে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ।

গত রোববার (১৩ সেপ্টেম্বর) কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে এ শোকজ করা হয়। কেন তাদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে না, চিঠি পাঠানোর তিন কর্মদিবসের মধ্যে স্বশরীরে উপস্থিত হয়ে তার উপযুক্ত কারণ উপস্থাপনের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

গঠনতন্ত্র অমান্য করে বরগুনা জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জুবায়ের আদনান অনিক বাল্যবিবাহ করেছেন বলে গুঞ্জন চলছে। বিয়ের বিষয়টি সম্পূর্ণ অস্বীকার করে অনিক বলেন, বিয়ে তিনি করেননি। তবে তার বাবা মেয়ে পছন্দ করে আংটি পরিয়ে রেখেছেন। অনিক অস্বীকার করলেও তার বিয়ের ছবি সামাজিক যোগাযোগ দেখা যাচ্ছে।

বাংলাদেশ ছাত্রলীগের গঠনতন্ত্রে ২৩এর (ক) ধারায় উল্লেখ রয়েছে যে, বিয়ে করলে ছাত্রলীগের কমিটিতে ঢুকতে পারবেন না। তবে কমিটিতে থাকাকালে কেউ বিয়ে করলে সদস্যপদ বাতিল না হলেও ছাত্রলীগের পরবর্তী কাউন্সিলে আর কোনো কমিটিতে থাকতে পারবেন না।

ছাত্রলীগের সভাপতি জুবায়ের আদনান অনিক কেন তার বিয়ের বিষয়টি গোপন রেখেছেন তা নিয়ে অনেক গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে। তবে অনেকেই ধারণা করছেন যে, বাল্যবিবাহের কারণেই তিনি বিয়ের বিষয়টি সম্পূর্ণ গোপন রেখেছেন। পিরোজপুর জেলার মঠবাড়িয়া উপজেলার টিকিকাটা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাবেক যুবলীগ নেতা রফিকুল ইসলাম রিপন জমাদ্দার(রাঙ্গা রিপনের) একমাত্র মেয়ে রামিশা আদনান সারার সঙ্গে জুবায়ের আদনান অনিকের বিয়ে হয়। গত ৩০ আগস্ট বরিশালের কোনো এক জায়গায় অত্যন্ত গোপনীয়তার সঙ্গে বিয়ে অনুষ্ঠিত হয়। অনিকের স্ত্রী রামিশা আদনান সারা মঠবাড়িয়া কে এম লতিফ ইনস্টিটিউট থেকে এ বছর এসএসসি পাস করেছেন।