ধর্ষণের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড: ছাত্রলীগের আনন্দ র‌্যালি


Dhaka
Published: 2020-10-13 13:26:31 BdST | Updated: 2020-10-21 05:49:20 BdST

ধর্ষণের শাস্তি মৃত্যুদণ্ডের বিধান রাখায় প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়ে আনন্দ র‌্যালি করেছে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ।

মঙ্গলবার বেলা ১টার দিকে ছাত্রলীগের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্যের নেতৃত্বে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে এ আনন্দ র‌্যালি অনুষ্ঠিত হয়।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেনসহ বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মীরা এই মিছিলে অংশগ্রহণ করেন। আরো উপস্থিত ছিলেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ও উত্তর ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক।

.

ধর্ষণের সর্বোচ্চ সাজা মৃত্যুদণ্ডের বিধান রেখে অধ্যাদেশ জারি করেছেন রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ। আজ মঙ্গলবার সকালে বঙ্গভবন থেকে রাষ্ট্রপতি সাংবিধানিক ক্ষমতাবলে এ অধ্যাদেশ জারি করেন। সোমবার মন্ত্রিসভার বৈঠকে ধর্ষণের সর্বোচ্চ সাজা বাড়ানোর অনুমোদন হয়। সংশোধন করা হয় ‘নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন-২০০০’।

মূল আইনের ৯ এর ১ ধারায় পরিবর্তন আনা হয়েছে। নারী শিশু নির্যাতন ট্রাইব্যুনাল এটি করবে এবং বিচার শেষ করতে হবে ১৮০ দিনের মধ্যে। ‘নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন-২০০০’ এ সর্বোচ্চ সাজা ছিল যাবজ্জীবন। এখন সংশোধন করে, করা হলো মৃত্যুদণ্ড বা যাবজ্জীবন। সংসদ অধিবেশন না থাকায়, সংশোধনীটি জারি করা হয় অধ্যাদেশ আকারে।