কে পাচ্ছেন নোবেল শান্তি পুরস্কার ২০১৮


আন্তর্জাতিক
Published: 2018-09-19 20:32:15 BdST | Updated: 2018-10-15 18:44:51 BdST

বছর ঘুরে আবারও আসছে নোবেল পুরস্কারের আসর। পদার্থ, রসায়ন, চিকিৎসা, সাহিত্য, অর্থনীতি এবং শান্তি বিস্তারে অবদান রাখার সবচেয়ে সম্মানজনক পুরস্কারের এই আসরে বিশ্ববাসীদের আগ্রহের কেন্দ্রে থাকে নোবেল শান্তি পুরস্কার।

২০১৮ সালের নোবেল শান্তি পুরস্কার প্রার্থীর সংখ্যা ৩৩১। এর মধ্যে ব্যক্তির সংখ্যা ২১৬ জন এবং প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা ১১৫টি। প্রার্থী সংখ্যা বিচারে এবারের নোবেল শান্তি পুরস্কারের প্রার্থী সংখ্যা দ্বিতীয় সর্বোচ্চ। ২০১৬ সালে নোবেল শান্তি পুরস্কারের প্রার্থী সংখ্যা ছিলো ৩৭৬।

আগামী ১০ অক্টোবর নরওয়ের অসলো থেকে এবছরের নোবেল জয়ীদের নাম ঘোষণা করবে দি নরওয়েজিয়ান নোবেল কমিটি।

এক নজরে নোবেল শান্তি পুরস্কার প্রক্রিয়া
পদার্থ, রসায়ন, চিকিৎসা, সাহিত্য, অর্থনীতিতে নোবেল পুরস্কার সুইডেনের স্টকহোম থেকে দেয়া হয়। কিন্তু শান্তিতে নোবেল পুরস্কার দেয়া হয় নরওয়ের অসলো থেকে। শান্তিতে নোবেল পুরস্কার দেয়ার দায়িত্ব দি নরওয়েজিয়ান নোবেল কমিটির হাতে। নরওয়ে সংসদের নিয়োগ দেয়া ৫ সদস্যের এই কমিটি শান্তিতে নোবেল পুরস্কারের প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে।

ফেব্রুয়ারির ১ তারিখের মধ্যে শান্তিতে নোবেল প্রার্থীদের পক্ষে মনোনয়ন জমা দিতে হয়। মার্চের মধ্যে যাচাই-বাছাই করে উপযুক্ত প্রার্থীদের একটি সংক্ষিপ্ত তালিকা করা হয়। এরপর আগস্ট পর্যন্ত চলতে থাকে বিশেষজ্ঞ পর্যায়ের পর্যালোচনা।  সেপ্টেম্বর নাগাদ চূড়ান্ত হয়ে যায় মনোনয়ন। অক্টোবরে শান্তিতে নোবেল জয়ীদের নাম ঘোষণার পালা আসে।  সংখ্যাগরিষ্ঠের ভোটের ভিত্তিতে তাদের নির্বাচিত করা হয়। সবশেষে ডিসেম্বরে শান্তিতে নোবেল জয়ীদের হাতে আনুষ্ঠানিকভাবে নোবেল পুরস্কার তুলে দেয়া হয়। নোবেল পুরস্কারের মধ্যে থাকে একটি মেডেল, ডিপ্লোমা এবং অর্থের পরিমাণ ও প্রাপ্তির নিশ্চয়তা সম্বলিত একটি দলিল।

তবে নোবেল পুরস্কারের জন্য মনোনয়ন পাওয়াদের নাম প্রকাশ করে না নোবেল কমিটি। এমনকি গণমাধ্যম এবং খোদ মনোনয়ন প্রাপ্তদেরও সাধারণত এসব তথ্য জানানো হয় না।  ৫০ বছর পার না হওয়া পর্যন্ত নোবেল কমিটির মনোনয়ন সংক্রান্ত তথ্যভাণ্ডার উন্মুক্ত করার রেওয়াজ নেই।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।