সৌদিতে আঁটসাঁট পোশাক পরলেই জরিমানা


টাইমস ডেস্ক
Published: 2019-09-29 22:13:10 BdST | Updated: 2019-10-21 05:33:55 BdST

সৌদি আরবে ‘শালীনতা’ লঙ্ঘন করে প্রকাশ্যে আঁটসাঁট পোশাক পরলে জরিমানা দিতে হবে। এ ছাড়া প্রকাশ্যে ঘনিষ্ঠ হলেও নির্দিষ্ট অঙ্কের জরিমানা গুনতে হবে। পর্যটকদের জন্য দেশটি উন্মুক্ত করে দেওয়ার এক দিন পর শনিবার নতুন এই সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছে সৌদি সরকার।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, নতুন এই বিধি অনুযায়ী নারী-পুরুষ সবাইকেই প্রকাশ্যে আঁটসাঁট পোশাক পরা থেকে বিরত থাকতে হবে। নিষিদ্ধ বার্তা কিংবা ছবিসংবলিত কোনো পোশাকও পরা যাবে না। কেউ যদি আইন অমান্য করে প্রকাশ্যে এসব পরিধান করেন, তাহলে তাঁকে জরিমানা দিতে হবে। সৌদি আরবের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এমন ১৯টি কাজের তালিকা তৈরি করেছে, যেগুলোর জন্য জরিমানা গুনতে হবে। তবে জরিমানার অঙ্ক এখনো নির্ধারণ করা হয়নি।

নতুন এই নিষেধাজ্ঞার ব্যাপারে সৌদি আরবের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘এই বিধি অনুযায়ী নারী-পুরুষ সবাইকেই শালীন পোশাক পরিধান করতে হবে। প্রকাশ্যে ঘনিষ্ঠ হওয়া থেকেও বিরত থাকতে হবে। শালীনতা বজায় রেখে নারীরা তাঁদের ইচ্ছা অনুযায়ী যেকোনো পোশাক পরতে পারবেন। সৌদি আরবে বেড়াতে আসা পর্যটকেরা যেন আমাদের সংস্কৃতির সঙ্গে মানিয়ে নিতে পারেন, সেই উদ্দেশ্যেই নতুন এই বিধি আরোপ করা হলো।’ চলতি বছরের এপ্রিল মাসে মন্ত্রিপরিষদের বৈঠকে এই আইন প্রাথমিকভাবে অনুমোদিত হয়।

নারীদের পোশাক কেমন হতে হবে, সে বিষয়ে একটি বিবৃতি দিয়েছে দেশটির পর্যটন কর্তৃপক্ষও। বিবৃতিতে নারীদের কাঁধ ও হাঁটু ঢাকা পোশাক পরে জনসমক্ষে আসার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তবে পর্যটন কর্তৃপক্ষের প্রধান আহমেদ আল-খতিব জানিয়েছেন, বাইরের দেশ থেকে ঘুরতে আসা নারী পর্যটকদের এই নির্দেশ মানা বাধ্যতামূলক নয়।

এর আগে গত শুক্রবার প্রথমবারের মতো পর্যটন ভিসা (ট্যুরিস্ট ভিসা) দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় সৌদি আরব সরকার। দেশটির তেলকেন্দ্রিক অর্থনীতিকে বহুমুখী করার উদ্যোগ হিসেবে এই ভিসা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে দেশটি। প্রাথমিক পর্যায়ে ৪৯টি দেশের নাগরিকেরা সৌদি আরবে যাওয়ার জন্য অনলাইনে পর্যটন ভিসার আবেদন করতে পারবেন।

টিআই/ ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯