পুলিশের বাধার মুখে শেষ হল নাগরিক সমাজের পদযাত্রা


ঢাকা | Published: 2021-03-03 16:52:58 BdST | Updated: 2021-04-11 21:47:36 BdST

কারাগারে লেখক মুশতাক আহমেদের মৃত্যুর প্রতিবাদে নাগরিক সমাজের ব্যানারে মিছিল নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় অভিমুখে যাত্রা করলেও পুলিশের বাধার মুখে পরিবাগের পর এগোতে পারেননি আন্দোলনকারীরা।

বুধবার সকালে রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে নাগরিক সমাবেশ শেষে দুপুর দেড়টার দিকে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের অভিমুখে এই পদযাত্রা শুরু হয়।

সমাবেশে বক্তারা ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিল, লেখক মুশতাক আহমেদের মৃত্যুর ঘটনায় তদন্ত ও দোষীদের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি জানান।

প্রেসক্লাবের সামনে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ শেষে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় অভিমুখে মিছিল বের হয়। প্রায় ২৫০ নেতাকর্মী দুপুর সাড়ে ১টার দিকে মিছিল শুরু করেন।

এ সময় প্রেসক্লাব, মৎস্য ভবন, শাহবাগে পুলিশ আটকানোর চেষ্টা করলেও পরে মিছিল নিয়ে যাওয়ার জায়গা করে দেয় পুলিশ।

বেলা দেড়টায় পরিবাগ মোড়ে মিছিলটি পুলিশের বাঁধার মুখে পড়ে। পরে সেখানেই তারা সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করেন।

এ সময় গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী পুলিশকে অনুরোধ করেন মিছিল নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে যেতে না দিলেও যেন ২০ সদস্যর একটি প্রতিনিধি দলকে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে যেতে দেয়া হয়। তবে তাতে সায় দেয়নি পুলিশ। পরে সেখানে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করে পদযাত্রা শেষ করেন।

পদযাত্রায় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন গণসংহতি আন্দোলনের সমন্বয়কারী জোনায়েদ সাকি, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, ভাসানী অনুসারী পরিষদের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা রফিকুল ইসলাম বাবলু, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড মহাসচিব কাউন্সিলের নঈম জাহাঙ্গীর, বিশিষ্ট আলোকচিত্রী শহিদুল আলম, সাংস্কৃতিক সংগঠন সমগীতের সংগঠক বীথি ঘোষ, লেখক ও প্রাবন্ধিক অরূপ রায় প্রমুখ।