অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিনের ভিসির পদে থাকার নৈতিক অধিকার নেই: সুলতানা কামাল


Desk report | Published: 2023-09-28 12:26:11 BdST | Updated: 2024-05-20 14:11:54 BdST

‘তালেবানি কালচার নিয়ে গৌরব করেন’, এমন মন্তব্যের পর শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদের উপাচার্য পদে থাকার নৈতিক অধিকার নেই বলে মন্তব্য করেছেন মানবধিকার কর্মী ও তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট সুলতানা কামাল। বুধবার (২৭ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় বিশ্ব পর্যটন দিবস উপলক্ষে সিলেটে আয়োজিত এক নাগরিক সভা শেষে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, ‘উপাচার্য বঙ্গবন্ধুর চেতনার কথা বলেন আবার যখন তিনি বলেন তিনি তালেবানি কালচারে বিশ্বাস করেন তখন আমাদের শঙ্কা হয়।’

এর আগে গত ২০ সেপ্টেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ের মিনি অডিটোরিয়ামে আয়োজিত তথ্য অধিকারবিষয়ক এক সেমিনারে শাবি উপাচার্য ফরিদ উদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘তালেবানি কালচার নিয়ে আমি খুবই গৌরবান্বিত, এটা নিয়ে থাকতে চাই। আমি ওপেন কালচার চাই না।’

উপাচার্য ফরিদ বলেন, ‘সবচেয়ে দুঃখজনক বিষয়, এখানে (বিশ্ববিদ্যালয়) ওপেন কালচার ছিল, ছেলেমেয়েরা যা খুশি, তাই করতে পারত। কেউ কিছু বলতে পারত না। কারণ, তাদের বয়স ১৮ বছর। কিন্তু আমি সাড়ে ১০টার মধ্যে হলে ঢুকতে হবে বলেছি।’

উপাচার্য বলেন, ‘তারা (শিক্ষার্থী) এটার (হলের ঢোকার সময় নির্ধারণ) নাম দিয়েছে তালেবানি কালচার। তালেবানি কালচার নিয়ে আমি খুবই গৌরবান্বিত, এটা নিয়ে থাকতে চাই। আমি ওপেন কালচার চাই না।’

শাবি উপাচার্যের ওই বক্তব্যের পর থেকেই চলছে নানা আলোচনা-সমালোচনা।