নামফলকহীন কুবির দপ্তরগুলো, ভোগান্তিতে শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা


Cumilla University Correspondent | Published: 2021-10-22 09:13:04 BdST | Updated: 2021-11-29 14:36:33 BdST

কুবি প্রতিনিধি: কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে (কুবি) প্রশাসনিক দপ্তরগুলোতে কর্মকর্তাদের পদ সম্বলিত নামফলক না থাকায় ভোগান্তি পোহাতে হয় দপ্তরগুলোতে সেবা নিতে আসা শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের। তাদের দাবি নির্দিষ্ট দপ্তরে যেতে প্রায়ই বিভিন্ন কক্ষ ঘুরতে হয়। এ নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন তারা।

‌সরেজমিনে দেখা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের ১৩টি দপ্তর ও অফিসের মধ্যে উপাচার্য এবং রেজিস্ট্রারের কক্ষের দরজায় রয়েছে মানসম্মত নেমপ্লেট। তবে রেজিস্ট্রার দপ্তরের অন্যান্য কর্মকর্তাদের কক্ষের দরজাই কোন নেমপ্লেট নেই।
এছাড়াও কোষাধ্যক্ষের দপ্তরে নেমপ্লেট থাকলেও সেটি প্রিন্ট করা একটি কাগজের। এর বাহিরে আইসিটি সেল এবং এস্টেট শাখাসহ আরো বিভিন্ন দপ্তরে কয়েকজন কর্মকর্তাদেরর পদ সম্বলিত নেমপ্লেট থাকলেও বেশিরভাগ দপ্তরে পাওয়া যায়নি। বিষয়টিকে প্রশাসনের অবহেলা দায়ী করেছেন দপ্তরগুলোর কর্মকর্তা কর্মচারীরা।

বাংলা বিভাগের ১১ তম ব্যাচের শিক্ষার্থী মোঃ আবদুর রহমান ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, কোন দপ্তর কোথায় আমরা জানিনা। দপ্তরে গিয়ে কাউকে জিজ্ঞেস করা লাগে বা খুঁজে বের করতে হয় অমুক দপ্তর কোথায়। এতে প্রায়ই ভোগান্তিতে পড়তে হয় আমাদের। নষ্ট হয় প্রচুর সময়।

‌বিষয়টি নিয়ে প্রকৌশল দপ্তরের কর্মকর্তা প্রকৌশলী এস এম শহিদুল হাসান বলেন, আমাদের নেমপ্লেট নাই কারণ এটা উদ্যোগ নেওয়া হয় নাই। আমি নিজেও মনে করি এটা দরকার। প্রশাসন থেকে যদি নেমপ্লেট লাগিয়ে দিত বা এস্টেট অফিস থেকে রুমগুলোর নাম্বারিং করে দিত তাহলে সবার জন্যই ভালো হতো।

‌কর্মকর্তা সমিতির সভাপতি মোঃ আবু তাহের বলেন, ঘনঘন পদোন্নতির কারণে নামফলক দিচ্ছে না। তবুও আমি যতোটুকু জানি কিছু কিছু দপ্তরে আছে। এই সমস্যার সমাধানের জন্য আমি আমার সমিতির মাধ্যমে বিষয়টি প্রসাশনকে জানাবো।

‌এদিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সব জায়গায় কর্মকর্তাদের নামফলক লাগে না দাবি করে রেজিস্ট্রার (অতিরিক্ত দায়িত্ব) অধ্যাপক ড. মোঃ আবু তাহের বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের গুণগত মান বৃদ্ধির সাথে নামফলকের কোন সম্পর্ক নেই। এর জন্য আমরা সিটিজেন চার্টের ব্যবস্থা করবো। যার মাধ্যমে কার কোন দপ্তরে কাজ, কোন কাজটা কোন দপ্তরে হচ্ছে, কে দায়িত্বশীল কর্মকর্তা এগুলো জানা যাবে। সিটিজেন চার্টার আমাদের শুদ্ধাচার কর্মকৌশলের একটা অংশ যা আমরা মাস খানেকের মধ্যে বাস্তবায়ন করার চেষ্টা করবো।