মুক্তিযোদ্ধা শেখ আব্দুস সালামের ছবি সংগৃহীত হলো ডাকসু সংগ্রহশালায়


Dhaka | Published: 2022-01-13 17:06:41 BdST | Updated: 2022-08-11 05:51:28 BdST

মহান মুক্তিযুদ্ধে শহীদ বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ আব্দুস সালামের ছবি সংগৃহীত হলো ডাকসু সংগ্রহশালায়। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের মাস্টার্স শেষ বর্ষের শিক্ষার্থী ও এসএম হলের আবাসিক ছাত্র থাকাকালীন তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র নেতা এবং যশোর জেলার মহাকুমার কালিয়া থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক থাকাকালে মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক ও সর্বদলীয় সংগ্রাম পরিষদের আহ্বায়ক হিসেবে মুক্তিযুদ্ধে অংশ নিয়ে তিনি শহীদ হন।

তিনিই স্থানীয়ভাবে ২৩শে মার্চ প্রথম পাকিস্তানের পতাকা পুড়িয়ে ফেলে স্বাধীন বাংলাদেশের মানচিত্র খচিত পতাকা উত্তোলন করেন। যশোর ক্যান্টনমেন্ট দখলের উদ্দেশ্যে ঐতিহাসিক ঝুমঝুমপুর যুদ্ধে তিনি নেতৃত্ব দেন।

মে মাসের ১ তারিখে তিনি স্থানীয় রাজাকারদের সহযোগিতায় পাকিস্তানি আর্মি দের হাতে বন্দি হন ও অমানুষিক নির্যাতন শেষে ১৩ই মে তাকে যশোর ক্যান্টনমেন্ট থেকে নিয়ে গিয়ে অজানা কোন বধ্যভূমিতে হত্যা করা হয়। ছাত্র সংগ্রাম ঐক্য পরিষদের নেতা শেখ আবদুস সালামের মহান স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে তার স্মৃতি ফলক সংগৃহীত করা হলো ডাকসু সংগ্রহশালায়। স্মৃতিফলক উন্মোচন করেন সলিমুল্লাহ মুসলিম হলের প্রভোস্ট ডক্টর মুজিবুর রহমান।

এসময় উপস্থিত ছিলেন শহীদ শেখ আব্দুস সালাম এর কন্যা ডক্টর সেখ মুসলিমা মুন। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি সঞ্জিত চন্দ্র দাস। পুরো প্রোগ্রামের আয়োজক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ ডাকসুর সাবেক সদস্য এবং বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের সহ-সভাপতি জনাব রকিবুল ইসলাম ঐতিহ্য।

ডক্টর সেখ মুসলিমা মুন বলেন, আমার বাবা শিক্ষার্থী থাকাকালীন মুক্তিযুদ্ধে চলে গিয়েছেন। দীর্ঘদিন যাবৎ তার ছবি এখানে না থাকলেও এখন যেহেতু বিশ্ববিদ্যালয় সংগ্রহ করেছে আমরা কর্তৃপক্ষের কাছে কৃতজ্ঞ এবং ছাত্রলীগের নেতারা ও শিক্ষার্থীরা আশা করি এর মাধ্যমে দেশের উন্নয়নে ভাল কাজের প্রতি আগ্রহ পাবেন। তারা  মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতি সম্মান দেখাচ্ছেন সেজন্য আমার পরিবার তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি। স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে এ উদ্যোগ আমাদেরকে উদ্বেলিত করেছে। 

ঐতিহ্য বলেন, এমন একজন মহান ব্যক্তির স্মৃতিচিহ্ন ডাকসুতে সংগ্রহ করতে পেরে আমরা গর্বিত। আশা করি, শিক্ষার্থীরা এর মাধ্যমে তার সম্পর্কে আরও জানতে পারবেন