শত চেষ্টা করেও বাঁচানো গেল না জবি শিক্ষার্থী অংকন বিশ্বাসকে


Desk report | Published: 2022-05-09 17:03:28 BdST | Updated: 2022-05-29 05:31:48 BdST

 

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) ইংরেজি বিভাগের ২০১৬-১৭ সেশনের (১২ তম ব্যাচ) মেধাবী শিক্ষার্থী অংকন বিশ্বাস বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালের আইসিউতে চিকিৎসারত অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন।

রোববার (৮ মে) রাত ১১টা ৩০ মিনিটে বিএসএমএমইউ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেন ইংরেজি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মমিন উদ্দিন।

গত ২৪ শে এপ্রিল একই সাথে ব্রেইন স্ট্রোক ও হৃদপিণ্ডের ধমনীতে ব্লকের সৃষ্টি হলে হার্ট অ্যাটাকে আক্রান্ত হয় অংকন বিশ্বাস। পরে আসগর আলী হাসপাতাল থেকে বিএসএমএমইউ এর আইসিউতে ট্রান্সফার করা হয়েছিল। প্রথম থেকে তার অবস্থা গুরুতর ছিল।

আইসিউতে চিকিৎসা ব্যয় সামলাতে পরিবার যখন হিমশিম খাচ্ছিল তখন সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেয় বন্ধুরা। কিন্তু তাতেও শেষ রক্ষা হলো না অংকনের।

অংকন বিশ্বাস ছিল ১২তম ব্যাচের মেধাবী শিক্ষার্থী। ফার্স্ট ক্লাস ফার্স্ট! অসাধারণ বিতার্কিক! টেলিভিশন বিতর্ক প্রতিযোগিতায়ও অংশগ্রহণ করেছে একাধিকবার৷তার হাত ধরে ইংরেজি বিভাগে এসেছে বেশ কিছু ট্রফি৷মানুষ হিসেবে ছিল অনন্য, অতুল্য!

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় পরিবার তার বিদেহী আত্নার শান্তি কামনা এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছে।

১২তম ব্যাচের শিক্ষার্থী স্বরুপ দাস বালা অংকনকে নিয়ে এক আবেগ জড়িত একটি ফেসবুক পোস্টে লিখেন, অংকন বিশ্বাস, শুধু নামটাই রয়ে গেল। কলাভবনে যে আর এই পরিচিত মুখটিকে দেখা যাবে না, এটা ভাবতেই অবাক লাগছে। মানুষ হঠাৎ করে কেমন হারায় যায়। ওপারে ভালো থেকো।

অংকনের নিজ বিভাগের ১৩তম ব্যাচের শিক্ষার্থী মিজান রাইয়্যান বলেন, তিনি ছিলন ইংরেজি ডিপার্টমেন্ট এর বহুমুখী প্রতিভার অধিকারী একজন শিক্ষার্থী তিনি খুব হাসিখুশি এবং মিশুক ছিলেন,সবাইকে সহজে আপন করে নিতে পারতেন। তাকে হারিয়ে আমরা সবাই শোকে স্তব্ধ।