জাবিতে ৬০০ টাকার ভর্তি ফরমের দাম ৯০০


Desk report | Published: 2022-05-18 20:38:02 BdST | Updated: 2022-07-04 22:19:16 BdST

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে (জাবি) ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক ভর্তি পরীক্ষায় এ, বি, সি ও ই ইউনিটে আবেদন ফি ৯০০ টাকা করা হয়েছে। গত বছর ছিলো এসব ইউনিটে আবেদন ফরমের দাম ছিল ৬০০ টাকা।

বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রারের কার্যালয় এ তথ্য নিশ্চিত করলেও, ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক প্রথম বর্ষের ভর্তি ফরমের দাম বাড়েনি বলে জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ডেপুটি রেজিস্ট্রার ও ভর্তি পরীক্ষা পরিচালনা কমিটির সদস্য সচিব আবু হাসান।

এ বিষয়ে আজ বুধবার তিনি বলেন, 'ভর্তি ফরমের দাম বাড়েনি। বরং ৯০০ টাকার বদলে ৯৫০ করার কথা ছিলো, সেটা করা হয়নি।'

তিনি বলেন, 'গত বছর ভর্তি পরীক্ষা ছিল ১০ ইউনিটে। এ বছর ভর্তি পরীক্ষা হচ্ছে ৫ ইউনিটে। আগের বছর ভর্তিচ্ছুদের যাদের ২টি ফরম কিনতে হতো, তাদের এ বছর একটি কিনলেই হচ্ছে।'

বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরিচালনা কমিটি জানায়, এ বছর ১০ ইউনিটের পরিবর্তে এই ৫ ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে জাবি প্রশাসন। এবার বিশ্ববিদ্যালয়ের ৬টি অনুষদ ও ৩টি ইনস্টিটিউটের অধীনে ৫টি ইউনিটে ভর্তির আবেদনের বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হয়।

এ, বি, সি ও ই ইউনিটে আবেদন ফি ৯০০ টাকা করা হলেও, ডি ইউনিটে আবেদন ফি ৬০০ টাকাই আছে।

এর আগে শিক্ষার্থীদের আপত্তি উপেক্ষা করে ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষেও স্নাতক সম্মান প্রথম বর্ষে ভর্তি ফরমের দাম ৫০ টাকা বাড়ানো হয়।

এদিকে ভর্তি ফরমের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে আজ বেলা ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের নতুন রেজিস্ট্রার ভবনের সামনে মানববন্ধন করে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট।

এতে অংশ নিয়ে সংগঠনটির সভাপতি আবু সাইদ বলেন, 'এ বছর বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষায় ইউনিট কমানো হলেও আবেদন ফি বাড়িয়ে দিয়ে ভর্তি বাণিজ্য বহাল রেখেছে প্রশাসন। সাবেক ভিসির বাসায় বসে অনলাইন মিটিংয়ে যোগদানের নামে ২ লাখ ৮৬ হাজার টাকা নিয়েছেন।'

তিনি আরও বলেন, 'গত এক বছরের ভর্তি পরীক্ষা থেকে আয়ের ৮ কোটি টাকার হিসেব দিতে পারেনি পরীক্ষা কমিটি। এ থেকে স্পষ্ট ভর্তি পরীক্ষার বিশাল অনিয়ম উঠে আসে। এ বছর আরো বেশি লুটপাটের জন্য আবেদন ফি বৃদ্ধি করা হয়েছে।'

দাম কমানোর ব্যাপারে জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য নুরুল আলমের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, 'এ বিষয়ে আমি কোনো মন্তব্য করব না।'