ভবিষ্যতেও পদ্মা সেতু হবে জাতির সর্বশ্রেষ্ঠ গৌরব : রবি উপাচার্য


Desk report | Published: 2022-06-26 11:03:04 BdST | Updated: 2022-08-14 16:02:40 BdST

ভবিষ্যতেও পদ্মা সেতু জাতির সর্বশ্রেষ্ঠ গৌরব আর দেশরত্ন শেখ হাসিনা সেই গৌরবের মধ্যমণি হয়ে থাকবেন বলে মন্তব্য করেছেন সিরাজগঞ্জের রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. মো. শাহ্ আজম। রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে গৌরবের পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উপলক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

শনিবার (২৫ জুন) বিকেলে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাকাডেমিক ভবন-২ এ বৃক্ষরোপণের মধ্যে দিয়ে পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানের শুভসূচনা করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. শাহ্ আজম।

পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাকাডেমিক ভবন-২ থেকে একটি আনন্দ শোভাযাত্রা শুরু হয়ে শাহজাদপুর শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাকাডেমিক ভবন-১ এ গিয়ে শেষ হয়। রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাকাডেমিক ভবন-১ এর লেকচার থিয়েটারে এই আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।

আলোচনা সভায় মুখ্য আলোচক হিসেবে আলোচনা করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. শাহ্ আজম।

তিনি বলেন, স্বপ্নের পদ্মা সেতু আজ উদ্বোধন করলেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পদ্মা সেতু শুধু একটি সেতু নয়, এটি বাঙালির অহংকার। সব ষড়যন্ত্রের বেড়াজাল ছিন্ন করে, সব বাধাবিপত্তিকে অতিক্রম করে সেটি আবারও প্রমাণ করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বাংলাদেশের মানুষ আজ মাথা উঁচু করে বলতে পারে বাংলাদেশ কারো কাছে মাথা নত করতে শেখে নাই। বাংলাদেশের পথ চলা বীরের মতো, সুতরাং পদ্মা সেতু আমাদের অহংকার। শুধুমাত্র অর্থনৈতিক উন্নয়নই নয়, দুই পারের মানুষের বিচ্ছিন্ন সাংস্কৃতিক ও সামাজিক মেলবন্ধন হয়েছে পদ্মা সেতুর মাধ্যমে।

এ সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মো. সোহরাব আলীসহ বিভিন্ন বিভাগের চেয়ারম্যান, শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

আলোচনা সভা শেষে বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের পরিবেশনায় এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।