জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবন ঘেরাও


Desk report | Published: 2022-08-01 20:03:21 BdST | Updated: 2022-10-05 18:25:48 BdST

উন্মুক্ত লাইব্রেরি খুলে দেওয়ার দাবিতে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) প্রশাসনিক ভবন ঘেরাও করে অবস্থান নিয়েছেন শিক্ষার্থীরা। এতে ভবনের স্বাভাবিক কার্যক্রম ব্যাহত হয়। পরে প্রশাসন থেকে আশ্বাস দেওয়া হলে অবস্থান কর্মসূচি তুলে নেন শিক্ষার্থীরা।

সোমবার (১ আগস্ট) দুপুর ৩টার দিকে শিক্ষার্থীরা প্রথমে প্রশাসনিক ভবনের ভেতর প্রবেশ করতে চাইলে প্রক্টরিয়াল বডির সদস্যরা তাদের বাধা দেন। তখন ভবনের সামনেই অবস্থান নেন তারা। ঘণ্টাখানেক পর বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার অধ্যাপক ড. কামালউদ্দীন আহমদ আন্দোলনরত কয়েকজন শিক্ষার্থীর সঙ্গে কথা বলে সমস্যা সমাধানের আশ্বাস দিলে তারা কর্মসূচি তুলে নেন।

আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা জানান, ঈদের আগে মেরামতের কথা বলে উন্মুক্ত লাইব্রেরি হিসেবে ব্যবহৃত শ্রেণিকক্ষগুলো বন্ধ করে দেওয়া হয়। তবে মেরামত শেষ হলেও কক্ষগুলোতে উন্মুক্ত লাইব্রেরির কার্যক্রম পুনরায় শুরু করা হয়নি। পূর্বে শিক্ষার্থীরা প্রশাসনের সঙ্গে কথা বললে তাদের জানানো হয়, বিভাগগুলোকে বলে দেওয়া হয়েছে। তবে বিভাগগুলো জানায়, প্রশাসন থেকে ব্যবস্থা করা হবে। এভাবে প্রশাসন ও বিভাগগুলোর সিদ্ধান্তহীনতায় বিপাকে পড়েন চাকরিপ্রার্থী শিক্ষার্থীরা।

আন্দোলনরত নবম ব্যাচের শিক্ষার্থী নাজমুল হাসান বলেন, কক্ষগুলো ঠিক করার পর আমাদের আর ব্যবহার করতে দেওয়া হচ্ছে না। বিভাগ থেকে বলছে, প্রশাসন বললে খুলে দেবে। আর প্রশাসন বলছে অনুমতি দেওয়া আছে। এভাবে হলে কীভাবে হবে, প্রতিদিন এসে পড়ার জায়গা না পেয়ে ঘুরে চলে যেতে হয়।

১১ ব্যাচের শিক্ষার্থী জসিম বলেন, ট্রেজারার স্যার আমাদের সঙ্গে কথা বলেছেন। তিনি আশ্বস্ত করেছেন, বৃহস্পতিবারের ভেতরে এটার সমাধান করে দেবেন। আর কেন্দ্রীয় লাইব্রেরির বিষয়েও সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। কেন্দ্রীয় লাইব্রেরিতে সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত শিক্ষার্থীরা আইডি কার্ড দিয়ে ভেতরে বই নিয়ে প্রবেশ করতে পারবেন। তবে এই বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেওয়া হবে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. মোস্তফা কামাল বলেন, শিক্ষার্থীরা যৌক্তিক দাবি নিয়ে ট্রেজারার স্যারের কাছে এসেছিল। স্যার তাদের সঙ্গে কথা বলেছেন। সংশ্লিষ্ট বিভাগের চেয়ারম্যানের সঙ্গে কথা বলে রুমগুলো খুলে দেওয়ার ব্যবস্থা করে দেওয়া হবে। কেন্দ্রীয় লাইব্রেরির বিষয়ে লাইব্রেরিয়ানের সঙ্গে বসে আলোচনা করে একটি সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।