সমালোচনার মুখে অতিরিক্ত টাকা ফেরত দিলেন বেরোবি রেজিস্ট্রার


Desk report | Published: 2022-08-09 18:12:19 BdST | Updated: 2022-10-05 18:21:47 BdST

ব্যাপক সমালোচনার মুখে উৎসব ভাতার উত্তোলন করা অতিরিক্ত টাকা ফেরত দিয়েছেন বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার প্রকৌশলী মুহাম্মদ আলমগীর চৌধুরী। বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থ ও হিসাব দপ্তর বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

গত বৃহস্পতিবার (৪ আগস্ট) রেজিস্ট্রার অতিরিক্ত হিসেবে নেওয়া ৯১ হাজার ১৮৬ টাকা ফেরত দিলেও বিষয়টি সোমবার (৮ আগস্ট) জানাজানি হয়।

জানা যায়, বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ও ট্রেজারার অধ্যাপক ড. হাসিবুর রশীদের অনুমোদনক্রমে রেজিস্ট্রার প্রকৌশলী আলমগীর চৌধুরীকে ঈদুল আজহার উৎসব ভাতা এবং ঈদুল ফিতরের বকেয়া উৎসব ভাতা বাবদ মোট মোট ১ লাখ ৪৮ হাজার ৮০০ টাকা দেওয়া হয়। কিন্তু আর্থিক বিধি অনুযায়ী কোনো চুক্তিভিত্তিক চাকরিজীবীকে বকেয়া ভাতা দেওয়ার সুযোগ নেই।

বিষয়টি নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেতরে ও বাইরে ব্যাপক সমালোচনা এবং বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ হলে এর ব্যাখ্যা চেয়ে গত ৩ জুলাই বিশ্ববিদ্যালয়কে চিঠি দেয় বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি)। এরপর উৎসব ভাতা হিসেবে নেওয়া অতিরিক্ত টাকা ফেরত দেন বেরোবি রেজিস্ট্রার।

বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থ ও হিসাব দপ্তরের পরিচালক অধ্যাপক হাফিজুর রহমান বলেন, রেজিস্ট্রারের আবেদনের ফলে তাকে উৎসব ভাতা দেওয়া হয়েছিল। পরে যাচাই-বাছাই করে দেখা যায় আমাদের একটু ভুল হয়েছে। পরে তাকে জানালে তিনি অতিরিক্ত টাকা ফেরত দেন।

প্রসঙ্গত, সার্চ কমিটির সুপারিশের ভিত্তিতে গত ১৭ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেটের ৮৪তম সভায় প্রকৌশলী মো. আলমগীর চৌধুরীকে রেজিস্ট্রার পদে নিয়োগ দেয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।