ঢাকা কলেজের বাংলা বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক সনজিদা আর নেই


Desk report | Published: 2022-10-01 22:43:41 BdST | Updated: 2022-11-30 13:40:04 BdST

ঢাকা কলেজের বাংলা বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক সনজিদা আক্তার মারা গেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। শনিবার (১ অক্টোবর) দুপুর ১২টার দিকে তিনি শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৫৭ বছর।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ঢাকা কলেজ শিক্ষক পরিষদের সম্পাদক ড. মো. আবদুল কুদ্দুস সিকদার।

তিনি বলেন, অধ্যাপক সনজিদা আক্তার আজ দুপুর ১২টার দিকে রাজধানীর মোহাম্মদপুরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেছেন। দীর্ঘদিন ধরেই তিনি লিভার সংক্রান্ত জটিলতায় ভুগছিলেন। সম্প্রতি ভারত থেকে ট্রান্সপ্লান্টের মাধ্যমে লিভারের ক্ষতিগ্রস্ত অংশ অপসারণও করা হয়েছিল। তবে দেশে ফেরার পর তার শারীরিক অবস্থার তেমন উন্নতি হয়নি।

অধ্যাপক সনজিদা আক্তার বিসিএস সাধারণ শিক্ষা ক্যাডারের ১৪তম ব্যাচের কর্মকর্তা ছিলেন জানিয়ে তিনি বলেন, তিনি অত্যন্ত দক্ষতার সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে ঢাকা কলেজে পাঠদান করেছেন এবং অন্যান্য দায়িত্ব পালন করছিলেন। শারীরিক গুরুতর অসুস্থতা নিয়েও নিয়মিত কলেজের আসতেন এবং শিক্ষার্থীদের পাঠদান থেকে শুরু করে বিভাগের বিভিন্ন কাজ সঠিকভাবে সম্পন্ন করেছেন। আমাদের জন্য তিনি উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবেন। তার মৃত্যুতে ঢাকা কলেজের শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারীরা গভীরভাবে শোকাহত। আমরা তার বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করছি।

সহকর্মীর মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেন ঢাকা কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক মোহাম্মদ ইউসুফ। তিনি বলেন, ঢাকা কলেজের বাংলা বিভাগের বিভাগীয় প্রধানের মৃত্যুতে আমরা গভীরভাবে শোকাহত। তার শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর শোক ও সমবেদনা প্রকাশ করছি। তিনি বিসিএস সাধারণ শিক্ষা ক্যাডারের ১৪তম ব্যাচের একজন কর্মকর্তা ছিলেন। আমরা একই ব্যাচের এবং একই বিভাগের শিক্ষক। ঢাকা কলেজে দীর্ঘদিন ধরে তিনি শিক্ষকতা করেছেন। সাধারণ শিক্ষার্থীসহ সবার কাছেই তিনি অত্যন্ত সমাদৃত ও শ্রদ্ধাভাজন ছিলেন। আমরা তার আত্মার মাগফেরাত কামনা করছি।

অধ্যাপক সনজিদা আক্তার ১৯৬৪ সালের ৭ অক্টোবর পিরোজপুর জেলায় জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৯৩ সালে তিনি ১৪তম বিসিএসে সাধারণ শিক্ষা ক্যাডারে কর্মকর্তা হিসেবে চাকরি শুরু করেন। সবশেষ ২০১৭ সালের ৪ এপ্রিল ঢাকা কলেজের বাংলা বিভাগের বিভাগীয় প্রধান হিসেবে দায়িত্ব নেন এবং মৃত্যুর আগ পর্যন্ত তিনি ঢাকা কলেজেই বিভাগীয় প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন।