একদফা দাবিতে আন্দোলন চরমে: রাজপথে ইবি শিক্ষার্থীরা


Shakib Aslam | Published: 2024-07-10 16:50:14 BdST | Updated: 2024-07-23 20:26:44 BdST

সরকারি চাকরীতে কোটার সংস্কারের দাবিতে মহাসড়ক অবরোধ করে সাংস্কৃতিক আয়োজনে'সহ অভিনব প্রক্রিয়ায় প্রতিবাদ জানিয়েছে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) শিক্ষার্থীরা। সকাল সন্ধ্যা বাংলা ব্লকেডে অবস্থানকারী আন্দোলনকারীরা যেন মনোবল না হারায় সে জন্য স্লোগানের পাশাপাশি প্রতিবাদী গান, কবিতা আবৃতি, গদ্যনৃত্যসহ নানা সাংস্কৃতিক আয়োজন করা হয়। হাইকোর্টের স্থিতিতাদেশের বিষয়ে আন্দোলনকারীরা জানান ঝুলানো কোনো আদেশ নয় চূড়ান্ত রায় পক্ষে না আসা পর্যন্ত এই আন্দোলন চলবে।

বুধবার (১০ জুলাই) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনের কুষ্টিয়া-ঝিনাইদহ মহাসড়ক অবরোধ করা হয়। এর পূর্বে সকাল ১০ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের বটতলা প্রাঙ্গণে সমবেত হয় সাধারণ শিক্ষার্থীরা। পরে বৈষম্য বিরোধী ছাত্রআন্দোলনের ব্যানারে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ মিছিল বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে প্রধান ফটকের সামনে সমবেত হয়।

বিক্ষোভ মিছিলে শিক্ষার্থীদেরকে আঠারোর হাতিয়ার, গর্জে উঠুক আরেকবার, জেগেছে রে জেগেছে, ছাত্রসমাজ জেগেছে, লেগেছে রে লেগেছে, রক্তে আগুন লেগেছে, আপস না সংগ্রাম, সংগ্রাম সংগ্রাম, মুক্তিযুদ্ধের বাংলায়, বৈষম্যের ঠাঁই নাই- ইত্যাদি স্লোগান দিতে দেখা যায়।

এসময় মহাসড়কে আটকে থাকা যাত্রীদের সাথে কথা বললে তারা বলেন, শিক্ষার্থীদের এই আন্দোলন যৌক্তিক। একটি দেশ স্বাধীন করার পিছনে মুক্তিযোদ্ধাদের অবদান কখনো অস্বীকার করবো না। তবে সরকারি চাকরিতে ৩০ শতাংশ মুক্তিযোদ্ধা কোটা অযৌক্তিক। আজকে আমরা এখানে কষ্ট করছি সত্য, তবে এই কষ্টের বিনিময়ে হলেও কোটা ব্যবস্থার সংস্কার হোক। তাহলে এই কষ্টও আমাদের গায়ে লাগবে না। সরকারের প্রতি আহবান থাকবে যেনো খুব দ্রুত এই বিষয়টি আমলে নিয়ে শিক্ষার্থীদের সন্তুষ্ট করে এবং আমাদের যাত্রীদের দুর্ভোগ থেকে মুক্ত করে।

এসময় বৈষম্যবিরোধী ছাত্র আন্দোলনের ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের সমন্বয়ক এস এম সুইট বলেন, আজকে বাংলা ব্লকেডের সকাল-সন্ধ্যা মহাসড়ক অবরোধের অংশ হিসেবে আমরা রাজপথে অবস্থান করছি। আমরা দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত রাজপথ ছেড়ে যাবো না। হাইকোর্টের প্রতি সম্মান রেখেই বলছি যেনো এই কোটা বৈষম্য দূর করে একটি সুস্থ প্রতিযোগিতার জন্য জায়গা তৈরি করে দেয়।

উল্লেখ্য, সরকারি চাকরির সব গ্রেডে সকল প্রকার ‘অযৌক্তিক ও বৈষম্যমূলক’ কোটা বাতিল করে সংবিধানে উল্লেখিত অনগ্রসর গোষ্ঠীর জন্য কোটাকে ন্যূনতম মাত্রায় এনে সংসদে আইন পাস করে কোটাপদ্ধতি সংস্কারের এক দফা দাবিতে সারা দেশে সড়ক অবরোধের ‘বাংলা ব্লকেড’ কর্মসূচি নিয়ে রাস্তায় নেমেছে শিক্ষার্থীরা।