খাদ্য সহায়তা চেয়ে জরিমানার শিকার বৃদ্ধের পাশে রাব্বানী


ঢাকা | Published: 2021-05-26 20:27:49 BdST | Updated: 2021-06-23 05:40:00 BdST

খাদ্য সহায়তা চাওয়ায় জরিমানার শিকার বৃদ্ধ ফরিদ উদ্দিনের বাড়িতে তিন মাসের খাবার নিয়ে হাজির হলেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও টিম পজিটিভ বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা গোলাম রাব্বানী।

বুধবার নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার দেওভোগ নাগবাড়ি এলাকায় ফরিদ উদ্দিনের বাড়িতে খাদ্য ১০০ কেজি চাল, ৬০ কেজি আলু, ২৫ কেজি ডাল, ৮ কেজি তেল নিয়ে হাজির জন তিনি। এ সময় নগদ ৫ হাজার টাকাও সহযোগিতা করেছেন তিনি।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার (২০ মে) হটলাইন ৩৩৩-এ নম্বরে কল করে খাদ্য সহায়তা চান বৃদ্ধ ফরিদ উদ্দিন। সহায়তা দিতে গিয়ে ইউএনও আরিফা জহুরা স্থানীয় ইউপি মেম্বার আইয়ুব আলীর দেওয়া তথ্যমতে জানতে পারেন সাহায্য চাওয়া ব্যক্তি ৪তলা বাড়ির মালিক ও সচ্ছল ব্যক্তি। এ ঘটনা জানার জরিমানা হিসেবে তাকে ১০০ প্যাকেট খাদ্য সহায়তা দিতে নির্দেশ দেন ইউএনও।

ইউএনও’র নিদের্শে ১০০ জনকে খাদ্য সহায়তার জন্য টাকা যোগাড় করতে নিজের ও ভাইয়ের স্ত্রীর স্বর্ণালঙ্কার বন্ধক দিতে হয়েছে ফরিদ উদ্দিনকে। এ কষ্টে তিনি আত্মহত্যারও চেষ্টা করেছেন। পরে ২২ মে বিভিন্নজনের কাছ থেকে টাকা যোগাড় করে তিনি ১০০ জনকে খাদ্য সহায়তা করেন। বিষয়টি গণমাধ্যমকর্মী জানার পর প্রকৃত ঘটনা জানা জানি হয়।

এ ঘটনাটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে গত কয়েক দিন ধরেই ভাইরাল ইস্যুতে পরিণত হয়। মিথ্যা তথ্য দেয়াই স্থানীয় মেম্বার ও জরিমানা করায় ইনএনও’র শাস্তি দাবি করেন অনেকেই।

অমানবিক এ ঘটনাটি জানার পর ডাকসুর সাবেক এ সাধারণ সম্পাদক গতকাল মঙ্গলবার নিজের ফেসবুক ওয়ালে লিখেছেন, ঘটনাটি অত্যন্ত দুঃখজনক। ইউএনও আপার আরো দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করা উচিত ছিল। প্রশাসনকে আরো বেশি সচেতন ও কর্তব্যনিষ্ঠ হতে হবে। With great power comes great responsibility! ফরিদ চাচার পাশে থাকবে TPB, আগামীকাল চাচার কাছে টিপিবির পক্ষ থেকে কমপক্ষে তিন মাসের প্রয়োজনীয় খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দেয়া হবে ইনশাআল্লাহ। (পরিমার্জিত)

ফেসবুকে পোস্ট দেয়ার ১৫ ঘণ্টার পরই গোলাম রোব্বানী টিম পজিটিভ বাংলাদেশের বেশ কিছু সক্রিয় সদস্য নিয়ে হাজির হন বৃদ্ধ ফরিদ উদ্দিনের বাড়িতে। সেখানে তিনি ফরিদ উদ্দিন, তার প্রতিবন্ধী ছেলে, কলেজ পড়ুয়া মেয়ে ও স্ত্রীর সঙ্গে কথা বলেন।

এ প্রসঙ্গে গোলাম রাব্বানী বলেন, আজ ফরিদ চাচার বাড়িতে গিয়ে বাস্তবতা দেখে এসেছি। টিম পজিটিভ বাংলাদেশ এর পক্ষ থেকে চাচাকে বেশ কিছু খাদ্য সামগ্রী ও নগদ অর্থ করা সহায়তা হয়েছে। আশা রাখি তিন মাস এসব খাবার খেতে পারবেন তিনি।

তিনি আরও বলেন, এ ঘটনায় মানবিক সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন টিপিবি সদস্য শাকিল নিঝুম, রিয়াদুল ইসলাম ও শাহ পরান শাকিল।

রাব্বানি বলেছেন, চলমান এ দুর্যোগে দেশের যেকোনো প্রান্ত থেকে প্রকৃত অসহায় কেউ যদি ৩৩৩ নম্বরে ফোন করে মাঠ প্রশাসনের দায়িত্ব অবহেলায় খাদ্য সহায়তা না পান তাহলে টিম পজিটিভ বাংলাদেশকে জানান। আমরা সরকারের যথাযথ কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করে খাদ্য সহায়তা নিশ্চিত করবো ইনশাল্লাহ।