ঢাবির প্রলয় গ্যাংয়ের সদস্যদের স্থায়ী বহিষ্কার দাবি


DU Correspondent | Published: 2023-03-27 21:39:11 BdST | Updated: 2024-06-16 11:16:06 BdST

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অপরাধ বিজ্ঞান বিভাগের ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী জোবায়ের ইবনে হুমায়ুনের ওপর নৃশংস হামলার প্রতিবাদ ছাড়াও ক্যাম্পাস থেকে গ্যাং সংস্কৃতি নির্মূলে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও সহপাঠীরা। এ সময় তারা হামলার সঙ্গে জড়িত সকলকে ক্যাম্পাস থেকে স্থায়ী বহিষ্কারসহ সবার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার আহ্বান জানান।

সোমবার (২৭ মার্চ) দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সন্ত্রাসবিরোধী রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে ওই মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

এতে অংশ নিয়ে ঢাবির অপরাধ বিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক এ বি এম নাজমুস সাকিব বলেন, আজ শিক্ষার্থীরা ক্যাম্পাসে নিরাপদ নয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের মতো এমন যায়গায় ‘প্রলয়’ নামের এমন দুর্ধর্ষ গ্যাং সদস্যরা প্রকাশে শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা করে। সাধারণ শিক্ষার্থীদের ওপর এমন পৈশাচিক হামলার দায় কে নেবে? আমরা চাই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে প্রলয় গ্যাংয়ের সদস্যদের স্থায়ী বহিষ্কারের মধ্যদিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে গ্যাং সংস্কৃতির কবর রচিত হবে।

প্রতিবাদ সমাবেশে অন্যদের মধ্যে ভুক্তভোগীর সহপাঠী খালিদ মাহমুদ মিরাজ বলেন, গত এক বছরে বিশ্ববিদ্যালয়ে সংঘটিত অর্ধশত চুরি, ছিনতাই, চাঁদাবাজির সঙ্গে জড়িত এই গ্যাংয়ের সদস্যরা। এদের বিরুদ্ধে কেউ কথা বললে তাকে সহ্য করতে হয় অপমান-হুমকিসহ স্বীকার হতে হয় নানা বুলিংয়ের।

এছাড়া অপরাধ বিজ্ঞানের অপর শিক্ষার্থী জামিল হোসেন বলেন, সোহরাওয়ার্দী উদ্যানকে কেন্দ্র করে গড়ে উঠা এই গ্যাংয়ের সদস্যরা বড় ভাইদের আশ্রয়ে এমন অপরাধ জগৎ গড়ে তুলেছে। নেশার টাকার জন্য দীর্ঘদিন ধরে এরা ক্যাম্পাসে ঘুরতে আসা যুগল, সাধারণ মানুষ, ভ্রাম্যমাণ দোকান থেকে চুরি, ছিনতাই এবং চাঁদাবাজি করে আসছ। ক্যাম্পাসে সন্ধ্যা নামতেই ফুলার রেড, শহীদ মিনার এলাকায় সাধারণ মানুষ এবং ভাসমান দোকানি থেকে অপমান-অপদস্থ করে জোরপূর্বক এমন ন্যক্কারজনক কাজ করে আসছে।