প্রলয় গ্যাংয়ের ৪ সদস্যকে বহিষ্কার করলো ঢাবি


DU Correspondent | Published: 2023-11-20 18:29:04 BdST | Updated: 2024-02-27 09:50:16 BdST

রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে এক শিক্ষার্থীকে নির্যাতনের অভিযোগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আলোচিত প্রলয় গ্যাং-এর ৪ সদস্যকে সাময়িকভাবে বহিষ্কার করা হয়েছে। এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয় থেকে তাদের কেন স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হবে না তা ৭ কার্যদিবসের মধ্যে কারণ দর্শাতে বলা হয়।

সোমবার (২০ নভেম্বর) নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবনে শৃঙ্খলা পরিষদের সভায় বহিষ্কারের এই সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

সাময়িকভাবে বহিষ্কৃতরা হলেন- তবারক মিয়া (শান্তি ও সংঘর্ষ অধ্যয়ন বিভাগ), মুরসালিন ফাইয়াজ (অর্গানাইজেশন স্ট্র্যাটেজি অ্যান্ড লিডারশিপ বিভাগ), ফয়সাল আহমেদ সাকিব (অর্গানাইজেশন স্ট্র্যাটেজি এন্ড লিডারশিপ বিভাগ) এবং জুবায়ের ইবনে হুমায়ুন (অপরাধ বিজ্ঞান বিভাগ)।

এছাড়া, বিভিন্ন অসামাজিক কাজে জড়িত থাকার অভিযোগে গঠিত আন্তঃহল তদন্ত কমিটির প্রতিবেদন অনুযায়ী প্রলয় গ্যাং-এর সদস্য ১৪ শিক্ষার্থীকে বিভিন্ন মেয়াদে শাস্তি দেওয়া হয়েছে। তাদের ২ মাস থেকে সর্বোচ্চ ২ বছর পর্যন্ত শাস্তি দেওয়া হয়েছে। পরীক্ষায় অসদুপায় অবলম্বনের দায়ে ৪৯ জন শিক্ষার্থীকে বিভিন্ন মেয়াদে শাস্তি দেওয়া হয়।

উল্লেখ্য, গত ৮ নভেম্বর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের পশ্চিম পাশে আলভী আরসলান নামে এক শিক্ষার্থী তার বান্ধবীর সঙ্গে গল্প করার সময় তবারক, মুরসালিন, সাকিব, জোবায়ের ইবনে হুমায়ূনসহ বেশ কয়েকজনের একটি দল তাদেরকে বিভিন্নভাবে হেনস্থার পর ভয়ভীতি প্রদর্শন শুরু করে। আলভী এর প্রতিবাদ করলে তাকে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের নির্জন স্থানে নিয়ে গিয়ে শুরু হয় পৈশাচিক শারীরিক নির্যাতন। অভিযুক্ত শিক্ষার্থীদের হাতে থাকা রড, লাঠি ও কাঠ দিয়ে তার বিভিন্ন স্থানে জখম করা হয়।

এ ঘটনায় গত ৯ নভেম্বর রাজধানীর শাহবাগ থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন ভুক্তভোগীর মা ডা. রেহেনা আক্তার। এরপরই ঘটনার তদন্ত করে তাদের সাময়িক নিষিদ্ধ করলো বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

//