নবীনদের বরণ করল কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়


Desk report | Published: 2023-01-23 21:03:37 BdST | Updated: 2023-02-03 16:40:00 BdST

ওরিয়েন্টেশনের মধ্যদিয়ে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে পথচলা শুরু করল বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থীরা। প্রথমদিনে শিক্ষার্থী জন্য বিভাগগুলোতে ছিল নানা আয়োজন।

নানা চড়াই পেরিয়ে গুচ্ছ প্রক্রিয়ার মধ্যে ইতোমধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হয়েছে ৮৯৬ জন শিক্ষার্থী। মোট ১ হাজার ৪০ আসনের মধ্যে ফাঁকা রয়েছে ১৪৪ টি আসন।

নতুন ক্যাম্পাস, নতুন অনুভূতি। নতুনদের এমন আগমনে উচ্ছাসিত বিশ্ববিদ্যালয় সংশ্লিষ্টরা। তাদের পদচারণায় মুখরিত ক্যাম্পাস পেয়েছে নতুন প্রাণ, বেড়েছে সজীবতা।

এদিকে নবীনদের বরণ করে নিতে বিভাগগুলোতে ছিল ভিন্ন ভিন্ন আয়োজন। ফুল দিয়ে বরণ করে নেওয়ার পাশাপাশি প্রশাসনের পক্ষ থেকেও ছিল নানা আয়োজন। নবীন শিক্ষার্থীদের মাঝে প্রথমবারের মতো বুকলেট, একাডেমিক ক্যালেন্ডার বিতরণসহ ফুল দিয়ে বরণ করে নেওয়া হয় তাদের।

ইংরেজি বিভাগের নবীন শিক্ষার্থী আবদুল গাফফার বলেন, প্রথম দিন ক্যাম্পাসে এসে আমার অনেক ভালো লাগছে। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ আমাদেরকে বরণ করে নেওয়ার জন্য বুকলেট ক্যালেন্ডার উপহার দিয়েছে। আমাদের বিভাগগুলো আমাদেরকে ফুল দিয়ে বরণ করে নিয়েছে। পরিচিতি পর্বে সবার সাথে পরিচিত হতে পেরে আমি আনন্দিত। আশা করছি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে নতুন কিছু অর্জন করতে পারব।

তারিন আক্তার নামের নৃবিজ্ঞান বিভাগের নবীন আরেক শিক্ষার্থী বলেন, স্কুল, কলেজের জীবন শেষে অন্য অনেকের মতো আমার স্বপ্ন ছিল বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়া। সে স্বপ্ন কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রথম দিন ওরিয়েন্টেশন পেয়ে সত্যি হয়েছে। নতুন একটি জায়গায় নতুন পরিচয় নিয়ে আসতে পারা সত্যি আনন্দের। আর প্রথমদিনে শিক্ষক ও সিনিয়রদের উপদেশ বেশ ভালো লেগেছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র পরামর্শক ও নির্দেশনা কার্যালয়ের পরিচালক ড. মো. হাবিবুর রহমান বলেন, স্নাতক প্রথম বর্ষের ওরিয়েন্টেশন শুরু করেছে বিভাগগুলো। প্রশাসন নবীনদের হাতে ক্যালেন্ডারসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ বিষয় তুলে ধরতে বুকলেট দিয়েছেন। নতুন শিক্ষার্থীরা স্বতঃস্ফূর্তভাবে প্রথমদিনের ক্লাসে অংশ নিয়েছেন। আমরা ফেব্রুয়ারিতে কেন্দ্রীয়ভাবে নবীনবরণের আয়োজন করব।

এদিকে নবীন শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ এফ এম আবদুল মঈন বলেন, আমি প্রথমেই শিক্ষার্থীদের স্বাগতম জানাই। বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে নবীনদের উদ্দেশে দিকনির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। আশা করব নবীনরা প্রকৃত দেশপ্রেমিক হয়ে দেশের এবং পৃথিবীর সেবায় নিজেদের নিয়োজিত করবে। শিক্ষার্থীদের শিক্ষার পাশাপাশি অন্যান্য কার্যক্রমে উৎসাহিত করার জন্য আমরা বৃত্তির ব্যবস্থা করেছি যা চলমান থাকবে।

//