কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রতিবাদী কনসার্টে বাধা দেওয়ার অভিযোগ


Desk report | Published: 2023-03-17 04:51:24 BdST | Updated: 2024-04-14 14:15:09 BdST

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুবি) তিন শিক্ষার্থীর উপর প্রকাশ্যে হামলার প্রতিবাদে আন্দোলনকারীদের পূর্ব-নির্ধারিত শান্তিপূর্ণ কর্মসূচির অংশ হিসেবে ‘কনসার্ট ফর জাস্টিস’ এ বাধা দেওয়ার চেষ্টা করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে প্রক্টর (ভারপ্রাপ্ত) কাজী ওমর সিদ্দিকীর বিরুদ্ধে।

বৃহস্পতিবার (১৬ মার্চ) বিকেল সাড়ে ৪টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের গোল চত্বরে এ ঘটনা ঘটে।

এসময় প্রক্টরিয়াল বডির অন্যান্য সদস্যরা ও ছাত্র উপদেষ্টা ড. মোহা. হাবিবুর রহমান উপস্থিত ছিলেন।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, আন্দোলনের কর্মীরা ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের সামনে কনসার্টের স্টেজ তৈরি করতে গেলে প্রক্টর ওমর সিদ্দিকী রাস্তা বন্ধ করে কনসার্ট করতে বাধা দেন। তিনি বলেন, এখান থেকে সরিয়ে অন্য কোথাও স্টেজ তৈরি করো। পরে আন্দোলনকারীদের অনড় অবস্থানে প্রক্টরিয়াল বডি চলে সেখান থেকে চলে যান।

প্রোগ্রামে বাঁধা দেওয়ার ব্যাপারে আন্দোলনের অন্যতম সমন্বয়ক ইমাম হোসাইন মাসুম বলেন, প্রক্টর স্যার এসে আমাদের বলেন, ‘তোমরা রাস্তা আটকাইছো কেনো?’ পরে আমি বলি, ‘স্যার আমরা তো রাস্তা আটকাই নাই। এখান দিয়ে রিক্সা, সিএনজি যাওয়ার রাস্তা আছে। একসাথে তিনজন যাওয়ার জায়গা আছে।’ তখন উনি বলেন, ‘বেশি করতেছ তোমরা। বেশি ইয়ে করতেছো তোমরা। বেশি ইয়ে করো না।’

বাধা দেওয়ার ব্যাপারে প্রক্টর (ভারপ্রাপ্ত) কাজী ওমর সিদ্দিকী বলেন, তাদেরকে কেউ কোনো বাধা দেয়নি, তাদেরকে শুধু বলা হয়েছিল যে আপনারা প্রোগ্রাম করেন তবে রাস্তা ব্লক করিয়েন না।

পরে উপাচার্য অধ্যাপক এএফএম. ড. আবদুল মঈন আন্দোলনকারীদের সাথে কথা বলেন। পরে তাদের সাথে উপাচার্য উচ্চবাচ্য করে বলেন, আন্দোলন করতেছতো। তোমরা আমাকে আন্দোলন শেখাও। তোমরা আন্দোলন কর, আমাদের বাধা নেই। কিন্তু রাস্তা আটকাইতে পার না।

এসময় সংবাদকর্মীরা ভিডিও করতে গেলে তিনি ভিডিও করতে নিষেধ করেন। পরে তিনি আন্দোলনকারীদের নিজের কক্ষে ডেকে নিয়ে যান।