সর্বজনীন পেনশন প্রজ্ঞাপন বাতিলের দাবিতে রাবিপ্রবি কর্মচারী সমিতির মানববন্ধন


Desk report | Published: 2024-05-20 22:06:25 BdST | Updated: 2024-06-17 03:58:47 BdST

সর্বজনীন পেনশন বাতিল, অভিন্ন আপগ্রেডেশন নীতিমালা প্রতিহত ও নবম পে-স্কেল প্রদানের দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবিপ্রবি) কর্মচারীরা। সোমবার (২০ মে) বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটকের সামনে বেলা ১০টা থেকে ১১টা পর্যন্ত এ কর্মসূচি পালন করেন কর্মচারীরা। এতে প্রায় ৯০ জন কর্মচারী অংশগ্রহণ করেন।

ব্যানার, প্লাকার্ড ও ফেস্টুনে বৈষম্যের নানা তথ্য তুলে ধরে তারা পেনশন নীতিমালার নানা অসংগতির কথা তুলে ধরেন।

এসময় রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় কর্মচারী কল্যাণ সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও বাংলাদেশ আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় কর্মচারী ফেডারেশন এর কেন্দ্রীয় কমিটির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক মো. ইমাম হোসেন ভূইয়া (তুহিন) বলেন, আমাদের ভবিষ্যৎ অন্ধকার। সকল বিষয়ে বৈষম্যের কারণে কর্মচারীদের দেয়ালে পিঠ ঠেকে গেছে। অবিলম্বে এই নীতিমালা বাতিলসহ কর্মচারীদের যুক্তিসংগত দাবিসমূহ মেনে নিতে হবে । আগে সরকারি চাকুরি করলে কোনো চিন্তা থাকতো না। কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতি এমন জায়গায় গিয়ে দাঁড়িয়েছে যে আমাদের সুন্দর ভাবে বেঁচে থাকা কষ্টকর হয়ে গেছে।

এসময় মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন কর্মচারী সমিতির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বর্ণা চাকমা, সাধারণ সম্পাদক মো. রফিকুল ইসলাম (রনি), যুগ্ম- সাধারণ সম্পাদক মহসিন আলম, সাংগঠনিক সম্পাদক এনভিল চাকমাসহ কার্যকরী কমিটির নেতা-নেত্রীবৃন্দ ও সাধারণ সদস্যগণ।

মানববন্ধন শেষে প্রতিবাদ র‍্যালি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন জায়গা প্রদক্ষিণ করে। রাবিপ্রবির শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারী এই প্রজ্ঞাপন বাতিল করার জন্য সরকারকে অনুরোধ জানিয়েছেন।

উল্লেখ্য, গত ১৩ মার্চ সরকারের অর্থ মন্ত্রণালয় কতৃর্ক জারিকৃত প্রজ্ঞাপনে জানানো হয়, যে সকল শিক্ষক/কর্মকর্তা/কর্মচারী আগামী ১ জুলাইয়ের পর যোগদান করবেন তাদের জন্য সর্বজনীন পেনশন স্কিমের 'প্রত্যয় স্কিম' বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। তাদের ক্ষেত্রে উক্ত প্রতিষ্ঠান বা সংস্থার জন্য বিদ্যমান অবসর সুবিধা সংক্রান্ত বিধিবিধান প্রযোজ্য হবে না।