পিএসসির সদস্য হিসেবে যোগদানে

ড. প্রদীপ কুমার পাণ্ডেকে রাবি গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের অভিনন্দন


Abu Saleh Shoeb | Published: 2024-04-18 21:20:26 BdST | Updated: 2024-05-24 22:56:38 BdST

বাংলাদেশ সরকারি কর্মকমিশনের (পিএসসি) সদস্য হিসেবে শপথ গ্রহণ করায় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগে প্রফেসর ড. প্রদীপ কুমার পান্ডেকে তাঁর সকল সহকর্মী-শিক্ষার্থী-কর্মকর্তা-কর্মচারি প্রাণঢালা অভিনন্দন জানিয়েছেন। একই সঙ্গে গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগ এই শুভক্ষণ আনন্দের সাথে উৎযাপন করছে।

বৃহস্পতিবার (১৮ এপ্রিল) দুপুরে বিভাগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ড. মো. মোজাম্মেল হোসেন বকুল স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই শুভেচ্ছা জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, গত ১৯ মার্চ জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের এক প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, মহামান্য রাষ্ট্রপতি সংবিধানের ১৩৮ (১) অনুচ্ছেদে প্রদত্ত ক্ষমতাবলে অন্যান্য প্রতিষ্ঠান ও সংগঠনের সঙ্গে কর্ম-সম্পর্ক পরিত্যাগের শর্তে প্রফেসর ড. প্রদীপ কুমার পাণ্ডেকে পিএসসির সদস্য নিয়োগ দিয়েছেন। এই পরিপ্রেক্ষিতে আজ বৃহস্পতিবার ১৮ এপ্রিল ২০২৪ সকালে মাননীয় প্রধান বিচারপতির কাছে শপথ বাক্য পাঠ করার পর তিনি দায়িত্বভার গ্রহণ করেন।

তাঁর এই নিয়োগে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগ বিশেষভাবে গর্বিত বোধ করছে। এটি তাঁর একটি অসাধারণ কৃতিত্ব এবং জনসেবার প্রতি তাঁর নিষ্ঠা, দক্ষতা এবং অঙ্গীকারের প্রমাণ। এই ধরনের একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকায় নিয়োগ তাঁর অনন্য যোগ্যতাকেই প্রতিফলিত করে। মানুষের সেবা করার জন্য তাঁর আবেগ এবং অটল সততা আমাদের বরাবরই মুগ্ধ করেছে।

আমরা সবসময় তাঁর নেতৃত্বগুণ ও অসাধারণ পেশাদারিত্ব লক্ষ করে এসেছি। আমরা আশা করি, ড. প্রদীপ পাণ্ডের নতুন ভূমিকা খুবই অর্থপূর্ণ হবে এবং তিনি অবশ্যই সফল হবেন। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা পরিবার বিশ্বাস করে প্রফেসর ড. প্রদীপ কুমার পাণ্ডে তাঁর মেধা, নিষ্ঠা, সততা ও কর্মদক্ষতার গুণে পিএসসির ভাবমূর্তি উজ্জ্বলতর করবেন এবং দেশ ও জাতির সেবায় আরো বেশি করে আত্মনিয়োগ করতে পারবেন।

পিএসসিতে যোগদানের পূর্বে ড. প্রদীপ কুমার পাণ্ডে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ দপ্তরের প্রশাসক পদে সফলতার সাথে দায়িত্ব পালন করছিলেন। এর আগে তিনি ২০১৫ থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত একই বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। অধ্যাপনার পাশাপাশি তিনি বাংলাদেশ প্রেস ইনস্টিটিউট অব বাংলাদেশ (পিআইবি), ইউনিসেফ, ইউএনডিপি, এশিয়া ফাউন্ডেশন, আর্টিকেল নাইনটিনের বিভিন্ন প্রশিক্ষণে রিসোর্স পার্সন ও প্রকল্পসমূহে যোগাযোগ বিশেষজ্ঞ হিসেবে কাজ করেছেন।

তিনি দেশে ও বিদেশে বিভিন্ন কনফারেন্সে অংশ নিয়েছেন। জাতীয় ও আন্তর্জাতিক বিভিন্ন জার্নালে তাঁর ৪১টি প্রকাশনা রয়েছে। ইতিপূর্বে পালন করা সকল দায়িত্ব সততা ও একাগ্রতার সাথে সফলভাবে পালন করে তিনি অসাধারণ দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। একই রকম দৃষ্টান্ত স্থাপন করে তিনি পিএসসির সদস্য হিসেবে সাফল্য অর্জন করবেন বলে আমরা মনে করি। আমরা তাঁর উত্তরোত্তর সাফল্য কামনা করছি।

  •