বর্ণিল আয়োজনে চবির ৩৯তম ব্যাচের পুনর্মিলনী


CU Correspondent | Published: 2022-10-29 09:30:06 BdST | Updated: 2023-02-03 15:49:48 BdST

‘প্রাণের উৎসবে আবেগের ঊনচল্লিশে’ প্রতিপাদ্যে দিনব্যাপী বর্ণিল আয়োজনে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) ৩৯তম ব্যাচের ১ম পুনর্মিলনী উৎসব অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শুক্রবার (২৮ অক্টোবর) সকাল ১০টা থেকে র‌্যালি, বেলুন-ফেস্টুন ও পায়রা ওড়ানোর মধ্য দিয়ে শুরু হয় বর্ণাঢ্য এ অনুষ্ঠান। এরপর সকাল ১১টা থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান অনুষদ মিলনায়তনে শুরু হয় আলোচনা সভা। এতে কেক কেটে অনুষ্ঠান উদ্বোধন করেন আলোচনা সভার প্রধান অতিথি ও চবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. শিরীণ আখতার।

উপাচার্য ৩৯তম ব্যাচের শিক্ষার্থীদের শুভেচ্ছা জানিয়ে বলেন, প্রাক্তন শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের অহংকার। তারা এ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে শিক্ষাজীবন শেষ করে স্ব স্ব কর্মক্ষেত্রে নিজেদের দক্ষতা ও সক্ষমতার স্বাক্ষর রেখে চলেছে শুধু তাই নয়; পাশাপাশি এ বিশ্ববিদ্যালয়ের সুনাম উজ্জ্বল করছে। এটি অত্যন্ত আনন্দের ও গৌরবের।

এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চবি উপ-উপাচার্য (একাডেমিক) অধ্যাপক বেনু কুমার দে। এছাড়া অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চবি রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) অধ্যাপক এস.এম. মনিরুল হাসান, দৈনিক আজাদীর সম্মাদক এম.এ. মালেক এবং চট্টগ্রাম চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রীর প্রেসিডেন্ট, চবি এলামনাই এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম ও প্রক্টর ড. রবিউল হাসান ভূঁইয়া।

আজাদীর সম্পাদক ও একুশে পদকপ্রাপ্ত সাংবাদিক এম. এ. মালেক বলেন, আবেগ দিয়ে তাড়িত না হয়ে বিবেক দিয়ে যেকোনো বিষয় বিবেচনা করা উচিত৷ বিবেক হলো আমাদের শ্রেষ্ঠ আদালত৷ আপনারা স্কলারশিপ শুরু করতে পারেন৷ এতে অসহায় শিক্ষার্থীরা উপকৃত হবে।

৩৯তম ব্যাচের অনুষ্ঠান উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক বজলুর কবীর খসরুর সভাপতিত্ব এবং জুবাইদা ছরওয়ার চৌধুরী নিপা ও দিলরুবা খানমের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে পুনর্মিলনী উদযাপন কমিটির সদস্য-সচিব রাশেদ এইচ চৌধুরীসহ কমিটির অন্যান্য নেতৃবৃন্দ, প্রাক্তন শিক্ষার্থীবৃন্দ ও তাদের পরিবারবর্গ উপস্থিত ছিলেন। বিকেল ৩টায় শুরু হয় স্মৃতিচারণ। এরপরই সাংস্কৃতিক পর্ব আয়োজনের মধ্য দিয়ে শেষ হয় পুর্নমিলনী উৎসব।

//