চবির ঝুলন্ত সেতুর সংস্কার কাজ শুরু হচ্ছে জুলাইয়ে


CU Correspondent | Published: 2024-05-09 09:01:06 BdST | Updated: 2024-06-17 04:51:26 BdST

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) নান্দনিক সৌন্দর্য বাড়াতে ২০০৯ সালে সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক আবু ইউসুফের উদ্যোগে রাঙামাটির ঝুলন্ত সেতুর আদলে চবিতে 'ঝুলন্ত সেতু' তৈরি করা হয়। অথচ অযত্ন, অবহেলা ও সংস্কারের অভাবে বেহাল এ ঝুলন্ত সেতু। ছয় বছরেও সেতুটি সংস্কার করেনি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। চলাচলের অনুপযোগী হওয়ায় সেতুটি ২০১৮ সালের শেষের দিকে কাঁটাতার দিয়ে বন্ধ করে দেয়া হয়। এখন পর্যন্ত সেতুটি একই অবস্থায় রয়েছে।

এদিকে এই নান্দনিক সৌন্দর্যের ঝুলন্ত সেতুর নতুন করে সংস্কার কাজ আগামী জুলাইয়ে শুরু করার আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আবু তাহের। জাতীয় বাজেট ও বিশ্ববিদ্যালয়ের বাজেট অধিবেশনের পর এই সংস্কার কাজ শুরু হবে বলে উপাচার্য জানান।

মঙ্গলবার (৭ মে) গণমাধ্যমকে এই তথ্য জানান। ইতোমধ্যে ঝুলন্ত সেতুর সংস্কার কাজের নির্দেশনা দেয়া হয়েছে বলেও তিনি জানান।

উপাচার্য অধ্যাপক ড. আবু তাহের বলেন, আগামী জুলাইতে আমরা এটার সংস্কার কাজ শুরু করব। বাজেটের পরপরই আমরা এটাতে হাত দিব। কারণ আমি ইতোমধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের কোথয় কেমন ব্যয় হচ্ছে সেটি নিয়ে কাজ শুরু করেছি। আস্তে আস্তে হয়ে যাবে। এটা প্রক্রিয়ার মধ্যে দিয়ে যেতে হবে।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, সেতুর প্রবেশমুখ ও চারপাশে কাঁটাতারের বেড়া দেয়া। সেতুর অনেক পাটাতন ভেঙে কোথাও কোথাও খাদের সৃষ্টি হয়েছে। নড়বড়ে ও ভঙ্গুর অবস্থায় পুরো সেতুটি।

এ ছাড়া সেতুর চারপাশে শ্যাওলা ও জঙ্গলের সৃষ্টি হয়েছে। ঝোপঝাড়ে ঢাকা সেতুটির শেষপ্রান্ত থেকে শুরু হয়েছে শহীদ আব্দুর রব হল ও কলা বিভাগে যাওয়ার রাস্তা।

উল্লেখ্য, চবির প্রয়াত উপাচার্য অধ্যাপক আবু ইউসুফের উদ্যোগে বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে এ সেতুটি নির্মাণ করা হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের এক সাবেক শিক্ষার্থীর অর্থায়নে নির্মিত সেতুটি ২০০৯ সালের ১৭ ডিসেম্বর সবার জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া হয়।