সশরীরে সমাবর্তনের দাবিতে ঢাবি উপাচার্যকে স্মারকলিপি


DU Correspondent | Published: 2023-06-06 00:14:03 BdST | Updated: 2024-07-20 19:07:52 BdST

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) অধিভুক্ত সাত কলেজের শিক্ষার্থীদের ডিজিটাল সমাবর্তন বাতিলের করে সশরীরে সমাবর্তন দেওয়ার দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান বরাবর একটি স্মারকলিপি দিয়েছে সাত কলেজ সাধারণ ছাত্র কল্যাণ পরিষদ নামে এক সংগঠন।

সোমবার (৫ জুন) দুপুরে সংগঠনটির কয়েকজনের একটি প্রতিনিধি দল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. মো. মাকসুদুর রহমানের মাধ্যমে উপাচার্যকে এ স্মারকলিপি প্রদান করেন।

এসময় সাত কলেজ সাধারণ ছাত্র কল্যাণ পরিষদের সমন্বয়ক আল আমিন আটিয়া, সহ সমন্বয়ক হাছান তারেক, রাছেল হোসেন, হুসাইন, তারেক আজিজ ও কাওছার আলী উপস্থিত ছিলেন।

স্মারকলিপিতে শিক্ষার্থীরা বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত হওয়া সত্ত্বেও আমরা যথেষ্ট অবজ্ঞার শিকার হচ্ছি। যেখানে পৃথিবীর সব বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তন সশরীরে ও আনন্দঘন পরিবেশে পালন করা হয় সেখানে আমাদের অনলাইনে সমাবর্তন নিতে হয়। যা আমাদের কষ্ট দেয়। আমাদের থেকে ফি নিলেও প্রতিবছর আমাদের অনলাইনে সমাবর্তন দেওয়া হয়। আমরা অনলাইন সমাবর্তনের বাতিলের দাবি জানাই এবং সেই সাথে আমাদের সশরীরে সমাবর্তনের জন্য সাত কলেজের শিক্ষার্থীদের নির্দিষ্ট কোনো একটি কলেজের মাঠে বা অডিটোরিয়ামে সমাবর্তন অনুষ্ঠান আয়োজন করার জন্য আর্জি জানাচ্ছি।

এছাড়া, স্মারকলিপির সাথে ছয় দফা দাবি সম্বলিত একটি কাগজ সংযুক্ত করে ঢাবির অধিভুক্ত সাত কলেজ ভিত্তিক এই সংগঠনটি। এ দাবিগুলো মেনে আগামী ১০ দিনের মধ্যে দৃশ্যমান ব্যবস্থা না নিলে কঠোর কর্মসূচিতে যাওয়ার হুঁশিয়ারিও দেন তারা।

তাদের দাবিগুলো হলো- সশরীরে সমাবর্তন দিতে হবে; প্রত্যেক কলেজে ছাত্র সংসদ নির্বাচন দিতে হবে; তিতুমীর কলেজ, বাংলা কলেজ, সোহরাওয়ার্দী কলেজ ও কবি নজরুল কলেজে ন্যূনতম একটি ছাত্রী হোস্টেল করে দিতে হবে; সেশন জট লাঘব করার জন্য শিক্ষাবর্ষের ক্যালেন্ডার প্রকাশ করতে হবে; শিক্ষার মান উন্নয়নের জন্য স্ব স্ব কলেজে কেন্দ্র রেখে ফাইনাল পরীক্ষাগুলো নিতে হবে; পরীক্ষার শেষ হওয়ার তিন মাসের মধ্যে ফলাফল প্রকাশ করতে হবে।