ভর্তি পরীক্ষায় জালিয়াতি, শাবিপ্রবিতে সাক্ষাৎকার দিতে এসে আটক


Desk report | Published: 2022-02-09 07:02:09 BdST | Updated: 2024-04-14 15:33:59 BdST

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (শাবিপ্রবি) ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষায় জালিয়াতি করে চান্স পাওয়া এক শিক্ষার্থীকে আটক করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে আটকের পর তাকে প্রক্টরিয়াল বডির কাছে পাঠায় ভর্তি কমিটি। আটক শিক্ষার্থীর নাম ইকবাল হোসেন সাঈদ। তার বাড়ি কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলায়। তার পরীক্ষা কেন্দ্র ছিল চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি অ্যান্ড অ্যানিম্যাল সায়েন্সেস বিশ্ববিদ্যালয়।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার সকাল থেকে সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত বি-ইউনিটের তৃতীয় ধাপের ভর্তি কার্যক্রম শুরু হয়। দুপুর ১টায় নির্ধারিত সময়ে ভর্তি কেন্দ্রে প্রবেশ করেন ইকবাল হোসেন সাঈদ। এ সময় পরীক্ষার ওএমআর শিটে হাতের লেখা ও স্বাক্ষরের গড়মিল পাওয়ায় তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে ভর্তি কমিটি। তিনি প্রাথমিকভাবে আরেকজনকে দিয়ে ভর্তি পরীক্ষায় প্রক্সি দেওয়ার কথা স্বীকার করেন। পরবর্তীতে তাকে প্রক্টরিয়াল বডির কাছে হস্তান্তর করে ভর্তি কমিটি।

বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর সজীব কুমার মোহন্ত বলেন, এখনো জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। ভর্তি পরীক্ষায় অনিয়মের বিষয়ে সে প্রাথমিকভাবে স্বীকার করেছে। আর্থিক লেনদেনের বিনিময়ে তার বড় ভাই আনোয়ারের এক বন্ধু ভর্তি পরীক্ষায় তার হয়ে প্রক্সি দেন। তার ভাই-ই এসবের ব্যবস্থা করেছেন। তবে সে তার ভাইয়ের বন্ধুর নাম বলতে পারেনি।

ভর্তি কমিটির সদস্য সচিব সহযোগী অধ্যাপক চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল হোসাইনী বলেন, ভর্তি পরীক্ষার ওএমআর শিটের সঙ্গে নিজের ও মা-বাবার নাম এবং স্বাক্ষরের গড়মিল পাওয়ায় আমাদের সন্দেহ হয়। এছাড়া গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষায় ইংরেজিতে ৪০ নম্বরের মধ্যে সে ২৬ পেয়েছে। তাকে প্রায় দেড় ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। ইংরেজি গ্রামারের ওপর কিছু প্রশ্ন করলে সে কিছুই বলতে পারেনি। এমনকি পরীক্ষা কেন্দ্রের নাম সে বলতে পারেনি।