ফের নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটির উপাচার্য অধ্যাপক আতিকুল ইসলাম


Desk report | Published: 2024-03-03 20:24:41 BdST | Updated: 2024-04-22 05:29:03 BdST

নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটির (এনএসইউ) ভাইস চ্যান্সেলর (ভিসি) হিসেবে পুনরায় নিয়োগ পেয়েছেন অধ্যাপক ড. আতিকুল ইসলাম। রাষ্ট্রপতি ও বিশ্ববিদ্যালয়ের চ্যান্সেলর আগামী চার বছরের জন্য তাকে এ পদে নিয়োগ দিয়েছেন। এ বিষয়ে রবিবার (৩ মার্চ) একটি আদেশ জারি করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

রাষ্ট্রপতি ও চ্যান্সেলরের অনুমোদনক্রমে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় আইন, ২০১০ এর ধারা ৩১ (১) অনুযায়ী অধ্যাপক ড. আতিকুল ইসলামকে তার পূর্ব নিয়োগের ধারাবাহিকতায় চার বছরের জন্য নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটির ভাইস-চ্যান্সেলর (ভিসি) পদে তিন শর্তে পুনরায় নিয়োগ প্রদান করা হলো।

এসব শর্তের মধ্যে রয়েছে- ভাইস-চ্যান্সেলর পদে অধ্যাপক ড. আতিকুল ইসলামের নিয়োগের মেয়াদ হবে ২০২৮ সালের ২২ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। তবে রাষ্ট্রপতি ও চ্যান্সেলর প্রয়োজনে যে কোনো সময় এই নিয়োগ আদেশ বাতিল করতে পারবেন; তিনি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ কর্তৃক নির্ধারিত বেতনভাতা প্রাপ্য হবেন এবং পদ সংশ্লিষ্ট অন্যান্য সুবিধাদি ভোগ করবেন;তিনি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় আইন, ২০১০ অনুযায়ী দায়িত্ব পালন করবেন।

অধ্যাপক আতিকুল ইসলাম ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারিতে ভিসির পদে দ্বিতীয়বারের মতো চার বছরের জন্য পুনরায় নিয়োগ পেয়েছিলেন। এর আগে ২০১৬ সালের ফেব্রুয়ারিতে রাষ্ট্রপতি কর্তৃক নিয়োগ পেয়ে নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি হিসেবে যোগদান করেন অধ্যাপক আতিকুল ইসলাম। তার আগে তিনি অস্ট্রেলিয়ার পার্থের এডিথ কোয়ান ইউনিভার্সিটির ব্যবসা ও আইন অনুষদের নির্বাহী ডিন এবং প্রো-ভিসি (এনগেজমেন্ট) হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

গত তিন দশকের বেশি সময় ধরে এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চলের বেশ কয়েকটি বিশ্ববিদ্যালয়ে তার শিক্ষকতা এর অভিজ্ঞতা রয়েছে। দীর্ঘ শিক্ষকতা জীবনে তিনি ইউনিভার্সিটি অব সিডনি, এনএসডাব্লিউ, কার্টিন ইউনিভার্সিটি, ক্যানটারবেরি ইউনিভার্সিটি এবং ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি সিঙ্গাপুর এ দায়িত্ব পালন করেছেন।

অধ্যাপক আতিকুল ইসলাম ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে প্রথম শ্রেণিতে বি.কম অনার্স এবং এম.কম উভয়ই ডিগ্রি অর্জন করেছেন। তিনি নিউ সাউথ ওয়েলস বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মাস্টার্স এবং সিডনি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেন। এছাড়াও তিনি সিপিএ অস্ট্রেলিয়ার একজন ফেলো এবং অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের চার্টার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্টস ইনস্টিটিউটের সদস্য।